‘এ’ দলের লঙ্কা জয়

প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

তিন ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ‘এ’ দল পিছিয়ে পড়েছিল ১-০ ব্যবধানে। পরের দুই ম্যাচ জিতে শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা থেকে হাসিমুখেই আজ দুপুরে দেশে ফিরছে তারা। কাল কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ডাকওয়ার্থ-লুইস-স্টার্ন পদ্ধতিতে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলকে ৯৮ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ বাংলাদেশ ‘এ’ জিতেছিল কঠিন করে। গতকাল সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে সেটি আর হয়নি। সাইফ হাসানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ৯ উইকেটে ৩২২ রানের বড় স্কোর পেয়েছে মিঠুন আলির দল। ১২০ রানের দুর্দান্ত শুরু এনে দিয়েছে সাইফ হাসান ও মোহাম্মদ নাঈমের ওপেনিং জুটি।

নাঈমের চোখে যখন তিন অঙ্ক ছোঁয়ার স্বপ্ন, তখন আরেক ঘটনা। ২৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলে তাকে রান-আউটের চেষ্টা ছিল শ্রীলঙ্কান ফিল্ডারদের। গায়ে বল লাগায় রান-আউট না হলেও আম্পায়াররা নাঈমকে দিয়েছেন ‘অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড’ আউট। আর এতেই আপত্তি তোলে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। নাঈম মোটেও ইচ্ছাকৃতভাবে বল আটকানোর চেষ্টা করেননি বলে দাবি তাদের। এ ঘটনায় খেলা বন্ধ থাকে ৫ মিনিট। বাংলাদেশ ম্যাচ রেফারিকে অনুরোধ করে ঘটনার ভিডিও দেখতে। কিন্তু ম্যাচ রেফারি জানান, খেলাটা সরাসরি সম্প্রচার না হওয়ায় ভিডিও দেখা যাবে না। আর যে আউট একবার দেওয়া হয়েছে সেটি ফিরিয়ে নেওয়ার নিয়মও নেই।

৬৬ রান করা নাঈমের বিতর্কিত আউটের পরও বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ব্যাটসম্যানদের অগ্রযাত্রা থামানো যায়নি। সাইফের ব্যাট থেকে আসে দ্যুতিময় সেঞ্চুরি। ৩টি ছক্কা ও ১২টি চারে ১১০ বলে করেছেন ১১৭। সাইফের ইনিংসের ৫৭ শতাংশ রান এসেছে বাউন্ডারি থেকে। বড় লক্ষ্যে খেলতে নেমে লঙ্কানরা শুরু থেকেই ছিল নড়বড়ে। বিকালে বাজে আবহাওয়ায় খেলা থেমে যাওয়ার আগে স্বাগতিকরা ২৪.৪ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে করতে পেরেছে ১৩০ রান।

‘এ’ দলের ঐতিহাসিক এই জয়কে দেশের ক্রিকেটের জন্য বড় সুখবর মনে করেন অধিনায়ক মিঠুন। শিরোপা উঁচিয়ে ধরার পর তিনি বলেন, ‘এটা খুব দরকার ছিল। আমাদের বাজে সময় যাচ্ছিল। এই সিরিজ জয় হয়তো আবারও সাফল্যের ধারায় ফিরতে আত্মবিশ্বাসী করবে আমাদের।’

 

 

"