মুশফিক-সানির দিনে তাসামুলের আক্ষেপ

প্রকাশ : ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) প্রথমদিনে চার ম্যাচের দুটিতে টসই হয়নি, বাকি দুটি মিলিয়ে খেলা হয়েছিল ১০৩ ওভারের মতো। বৃষ্টি বাগড়ায় উদ্বোধনী দিনের অধিকাংশ সময়টা ভেস্তে যাওয়ার পর কাল দ্বিতীয় দিনে খেলাও যেমন হলো, ঝলমলে পারফরম্যান্সও এসেছে ব্যাটসম্যান-বোলারদের থেকে।

রাজশাহী বিভাগের মুশফিকুর রহিম ৭৫ রান করেছেন। চট্টগ্রাম বিভাগের তাসামুল হক ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরির আক্ষেপে পুড়েছেন। ঢাকা মেট্রোর স্পিনার আরাফাত সানি তুলে নিয়েছেন ৬ উইকেট। রাজশাহী বিভাগের স্পিনার তাইজুল ইসলামের নামের পাশে যোগ হয়েছে ৪ উইকেট।

ঢাকা-রাজশাহী : ফতুল্লায় টায়ার-১-এর ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ২৪০ তুলে অলআউট হয়েছে ঢাকা বিভাগ। জবাব দিতে নেমে স্বস্তিতে নেই রাজশাহী বিভাগও, ১৭৩ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারিয়ে দিন শেষ করেছে তারা। রনি তালুকদারের ৬৩-এর পর ঢাকাকে আড়াইশোর কাছে নিয়ে গেছে তাইবুর রহমানের অপরাজিত ৮৮ রান। রাজশাহীর হয়ে ৪ উইকেট নিয়ে সফল তাইজুল ইসলাম। শফিউল ইসলাম ৩টি ও ফরহাদ রেজা নিয়েছেন দুটি করে উইকেট। জবাব দিতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো রাজশাহীকে পরে পথে রাখেন জহুরুল ইসলাম ও মুশফিকুর রহিম। মুশফিক ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ১১৬ বলে ঝলমলে ৭৫ রানে ফিরে গেলেও মাটি কামড়ে আছেন অধিনায়ক জহুরুল, অপরাজিত আছেন ৫৭ রানে। ঢাকার হয়ে ৩ উইকেট নিয়ে সফলতম বোলার সুমন খান।

রংপুর-খুলনা : টায়ার-১-এর আরেক ম্যাচে খুলনায় ৭২ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬৯ রান তুলে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে রংপুর বিভাগ। নাঈম ইসলাম ৪৮ করে দিনের সর্বোচ্চ সংগ্রাহক। তানবীর হায়দার ৪০ ও সোহরাওয়ার্দী শুভ ৩১ রানে অপরাজিত থেকে তৃতীয় দিনে সংগ্রহ বাড়াতে নামবেন। খুলনার হয়ে আল-আমিন হোসেন ও অভিজ্ঞ আবদুর রাজ্জাক দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।

সিলেট-বরিশাল : রাজশাহীতে টায়ার-২-এর ম্যাচটিতে দ্বিতীয় দিন পর্যন্ত খেলা হয়েছে সবে ৩১ ওভার। তাতে ৩ উইকেটে ৬৮ রান তুলেছে সিলেট বিভাগ। জাকির হাসান ৩২ ও অধিনায়ক অলক কাপালি ৮ রানে অপরাজিত আছেন। বরিশালের হয়ে পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি দুটি উইকেট তুলে নিয়েছেন। একটি উইকেট গেছে তৌহিদুল ইসলামের ঝুলিতে।

চট্টগ্রাম-ঢাকা মেট্রো : মিরপুরে টায়ার-২-এর অপর ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ২৯০ রান তুলে থেমেছে চট্টগ্রাম বিভাগ। দ্বিতীয় দিন শেষে ঢাকা মেট্রো ২ উইকেটে ৬৬ রানে আছে। সাদিকুর রহমানের ৫১, তাসামুল হকের ৯০ রানে তিনশোর কাছে পৌঁছায় চট্টগ্রাম। তাদের সংগ্রহটা বাড়েনি মূলত আরাফাত সানির ঘূর্ণিতে, ঢাকা মেট্রোর স্পিনার ৬ উইকেট ঝুঁলিতে পুরেছেন। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নামের পাশে যোগ হয়েছে ৩ উইকেট। নিজেদের ইনিংসে শুরুতেই দুই উইকেট হারায় ঢাকা মেট্রো। সাদমান ৬ ও রাকিন ৮ রানে ফিরে যান। শামসুর রহমান ২৬ ও মার্শাল আইয়ুব ২১ রানে তৃতীয় দিনে নামবেন।

 

"