সান্তনার ড্র নিয়ে ফিরছে কিশোরীরা

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

এএফসি কাপ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্বে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ড্র করেছে বাংলাদেশ। যদিও গতি, স্কিল আর ফিনিশিংয়ে এগিয়ে থেকেও জয়বঞ্চিত হয়েছে বাংলার মেয়েরা। বাংলাদেশের হয়ে দুটি গোলই করেন তহুরা খাতুন। গতকাল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে থাইল্যান্ডের আইপিই স্টেডিয়ামে নিয়ম রক্ষার ম্যাচ খেলতে নামে বাংলাদেশ। গতবারের মতো এবারও চূড়ান্ত পর্বে ভালো কিছু করতে পারেনি মেয়েরা। তবে তিন ম্যাচে ১২ গোল হজম আর বাজে অভিজ্ঞতার সঙ্গে সান্ত¡নার ড্রকে সঙ্গী করে দেশে ফিরছেন মারিয়া-আঁখিরা।

গতকালের ম্যাচের শুরু থেকেই অস্ট্রেলিয়ার আক্রমণ আটকাতে হিমশিম খেতে হয় বাংলাদেশকে। তারপর ঘুরে দাঁড়ায় ছোটনের মেয়েরা। কাউন্টার অ্যাটাকে দুই অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়কে পেছনে ফেলে এবং এগিয়ে আসা গোলরক্ষককের মাথার ওপর দিয়ে দুর্দান্ত এক ফ্লিক করেন তহুরা। ২০ মিনিটে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

৪৪ মিনিটের মাথায় বাংলাদেশের দলপতি মারিয়ার বাঁকানো শট সরাসরি অস্ট্রেলিয়ার গোলরক্ষকের গ্লাভসবন্দি হয়। এর ১ মিনিট পর কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে সরাসরি শট নেন অস্ট্রেলিয়ান স্ট্রাইকার। দারুণ সেভে করে দলকে বিপদমুক্ত করেন গোলরক্ষক রুপনা। ১-০ গোল এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিরতির পর ৭৬ মিনিটের মাথায় সমতায় ফেরে অস্ট্রেলিয়া। কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে মাথা ছুঁইয়ে বাংলাদেশের জালে বল জড়ান মিহোসিচ। পরের মিনিটেই আবারও লিড নেয় বাংলাদেশ। এবারও লম্বা পাস কাজে লাগিয়ে অস্ট্রেলিয়ান গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন প্রথম গোলদাতা তহুরা। ২-১ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

৮০ মিনিটের মাথায় আবারও সমতায় ফেরে অস্ট্রেলিয়া। ডি-বক্সের বাইরে থেকে উঁচু শটে বাংলাদেশের গোলরক্ষক রুপনাকে পরাস্ত করেন পাইগে জোইস। ২-২ গোলের সমতায় ফেরে ম্যাচ। ম্যাচের বাকি সময়ে দুই দল আর কোনো গোলের দেখা পায়নি। ফলে ২-২ গোলের ড্র নিয়েই শান্ত থাকতে হয় দুই দলকে। এবার শুরুর ম্যাচে স্বাগতিক থাইল্যান্ডের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে এসে শক্তিশালী জাপানের বিপক্ষে ৯-০ গোলের হার। শেষ ম্যাচে ড্র দিয়ে মিশন শেষ হলো গোলাম রবাবনী ছোটনের শিষ্যদের।

 

"