বাঁকা চোখে

কারাদণ্ড

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ্যে বন্দুকচালনা, ইচ্ছেকৃত আঘাত আর বেআইনি অস্ত্র রাখার মাশুল দিতেই হলো আর্দা তুরানকে। বার্সেলোনার এই মিডফিল্ডারকে ৩২ মাসের কারাদ- দিয়েছেন তুরস্কের একটি আদালত।

যদিও তুরানকে এখনই কারগারে যেতে হচ্ছে না। রায়ের বাস্তবায়ন হওয়ার সময়সীমা পিছিয়ে দিয়েছে আদালত। তুরস্ক জাতীয় দলের এই ফুটবলারের জেলে নাও যেতে হতে পারে। কারণ আদালত জানিয়েছে, আগামী ৫ বছরের মধ্যে তুরান ফের কোনো অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ে দোষী সাব্যস্ত হলে তবেই কেবল কারাগারে ঢুকতে হবে।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলের একটি নাইটক্লাবে পপস্টার বার্কে শাহিনের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিলেন তুরান। তার ঘুষিতে শাহিনের নাক ফেটে যায়। এমনকি হাসপাতালে পৌঁছে প্রকাশ্যে বন্দুক চালিয়ে বসেন ৩২ বছর বয়সি এই ফুটবলার।

তুরানকে তখনই প্রায় সাড়ে ৪ লাখ মার্কিন ডলার জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা তার ১২ বছরের কারাদ- দাবি করেন। যদিও আদালত এতটা কঠোর হয়নি। এর কারণ ভুল বুঝতে পেরেছেন তুরান। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতিতে ঘটনার দায় স্বীকারসহ পরিবার ও ক্লাবের থেকে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি।

 

"