নিরামিষ

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

ক্রিকেট খেলাটার জন্মকাল থেকেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে চামড়ায় আবৃত বল। সময়ের আবর্তনে বলের ওজন, আকৃতি কিংবা গুণগত মানে ঢের পরিবর্তন এসেছে। কিন্তু কখনোই চামড়ার আবরণ থেকে সরে আসেনি ক্রিকেট বল। কিন্তু এবার সেটিই যেন করতে চাচ্ছে ইংল্যান্ডের একটি ক্রিকেট ক্লাব। লন্ডনের প্রায় ৪০ মাইল পশ্চিমে রিডিং অঞ্চলে আর্লি ক্রিকেট ক্লাবকে এখন সবাই চেনে ভেজান ক্রিকেট ক্লাব নামে। তারাই চামড়ার পরিবর্তে রাবারের আবরণ দিয়ে ‘নিরামিষ’ ক্রিকেট বল প্রচলনের বন্দোবস্ত করছে। গত দুই বছর ধরে এই ক্লাবের খেলোয়াড়দের জন্য আবিষ্কার করা হয়েছে বিশেষ এক ভেজ বা নিরামিষ চা। ক্লাবটির পরিচালক গ্যারি শেকল্যাডি পাঁচ বছর আগে সব ধরনের আমিষ খাবার ছেড়ে দিয়ে পরিণত হয়েছেন নিরামিষভোজী মানুষে। তার ক্লাবের বাকিদেরও চাচ্ছেন নিরামিষভোজীতে পরিণত করতে। এই শেকল্যাডিরই উদ্ভাবন মূলত নিরামিষ বল। এ বলের আচরণ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘চামড়ার ক্রিকেট বলের মতোই আচরণ করে এই বল। তবে এই বলে বাউন্স একটি বেশি হয় এবং গ্রিপ করতে অসুবিধা হয়। তবে আমরা এই নিরামিষ বল ব্যবহারে আগ্রহী। তাই এর উন্নত সংস্করণ বের করার ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছি।’ প্রায় এক যুগ আগে শেকল্যাডির হাত ধরেই যাত্রা শুর করেছিল আর্লি ক্রিকেট ক্লাব। শেকল্যাডি পরবর্তী সময়ে নিরামিষভোজী হয়ে যান এবং ক্লাবের সদস্যেরও সে পথে হাঁটতে অনুপ্রাণিত করেন।

"