লিভারপুল-সিটির দাপুটে সূচনা

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

দুই মাসের দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ঘটল শুক্রবার রাতে। যাত্রা শুরু হলো বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘরোয়া ফুটবল আসর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের (ইপিএল) নতুন মৌসুমের। আর উদ্বোধনী নিজেদের ডেরা ম্যাচে অ্যানফিল্ডে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে লিভারপুল। পদোন্নতি পেয়ে লিগে খেলতে নামা নরউইচকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে অলরেডরা। কম যায়নি শিরোপাধারী ম্যানচেস্টার সিটিও। চ্যাম্পিয়নের মতো শুরু করেছে তারাও। ওয়েস্ট হামকে তাদেরই মাঠে ৫-০ গোলে গুঁড়িয়ে দিয়েছে সিটিজেনরা।

শুক্রবার রাতে ক্লপের শিষ্যদের ম্যাচের শুরুর মিনিট দশেক খানিকটা ছন্দহারা মনে হয়েছিল। তবে গুছিয়ে নিয়ে খেলায় ফিরতেও দেরি করেনি ইংলিশ জায়ান্টরা। শুরুতেই নিজেদের জালে বল জড়িয়ে পিছিয়ে যায় নরউইচ। এরপর এক এক করে লিভারপুলের খেলোয়াড়রা তিনবার তাদের জালে বল জড়ান। দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুলের জালে ১ গোল দিয়ে ব্যবধান কমালেও কাজের কাজ আসলে কিছু হয়নি। ততক্ষণে ৪ গোল হজম করে আছে নরউইচ। শেষ পর্যন্ত ৪-১ স্কোর লাইনেই শেষ হয় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ২০১৯-২০ মৌসুমের প্রথম ম্যাচ। উদ্বোধনী ম্যাচের রাতে প্রথমার্ধেই গোল পেয়েছেন মোহাম্মদ সালাহ, ভার্জিল ফন ডাইক, ডিভক ওরিগির মতো তারকারা।

দ্বিতীয়ার্ধে নরউইচ বলের দখল নিয়ে খেলার চেষ্টা করে। এ কৌশলে তারা কিছুটা সফলও হয় বটে। ৬৪তম মিনিটে টিমু পুক্কির গোলে ব্যবধান কমায় নরউইচ। দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুল গোলের বেশকিছু সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়েছে। তবু শেষ পর্যন্ত বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ীরা।

এদিকে, কাল বিকালে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেডকে ৫-০ গোলে চূর্ণ-বিচূর্ণ করেছে ম্যানসিটি। হ্যাটট্রিক করেছেন সিটি ফরোয়ার্ড রহিম স্টার্লিং।

ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) প্রযুক্তির এবার অভিষেক ঘটেছে প্রিমিয়ার লিগে। পরশু লিভারপুল-নরউইচ ম্যাচে এ প্রযুক্তির কোনো প্রয়োজন না পড়লেও কাল তা বেশ ভালোই সাহায্য করেছে মাঠের রেফারিকে। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল সিটি। বিরতির পর ৫১ মিনিটে নিজের প্রথম গোলটি করেন স্টার্লিং। এর দুই মিনিট পর সিটি ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল জেসুস গোল করলেও ভিএআর-এর সাহায্য নিয়ে গোলটি বাতিল করে দেন রেফারি। ব্রাজিলিয়ান তারকা গোলটি করার সময় সূক্ষ্ম ব্যবধানে অফ সাইড ছিলেন স্টার্লিং। ইংলিশ ফরোয়ার্ড ৭৫ মিনিটে সিটিকে তৃতীয় গোলটি এনে দেন। গোলটি করার সময় তিনি অফ সাইড ছিলেন কি না, সেটিও দেখা হয়েছে ভিএআর-এর সাহায্যে। নির্ধারিত সময়ের ৪ মিনিট আগে সিটির হয়ে পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন আর্জেন্টাইন তারকা সার্জিও আগুয়েরো। কিন্তু আগুয়েরোর কপাল ভালো যে, ভিএআর তাকে পেনাল্টি শটটি দ্বিতীয়বার নেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। দ্বিতীয়বার সুযোগ পেয়ে গোল করতে কোনো ভুল করেননি আগুয়েরো।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে হ্যাটট্রিক তুলে নেন স্টার্লিং। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে শুরুর সপ্তাহে অষ্টম খেলোয়াড় হিসেবে হ্যাটট্রিকের মুখ দেখলেন স্টার্লিং। ২০১০-১১ মৌসুমে সবশেষ এ নজির গড়েছিলেন চেলসি কিংবদন্তি দিদিয়ের দ্রগবা।

ফলাফল

লিভারপুল ৪-১ নরউইচ

ওয়েস্ট হাম ০-৫ ম্যানসিটি

"