মেসির মৃত্যু কামনাকারী মেসিরই দলে!

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

কয়েক মাস ধরেই একজন ভালো লেফটব্যাক খুঁজছিল বার্সেলোনা। দলের মূল লেফটব্যাক জর্ডি আলবার সঙ্গে অদল-বদল করে খেলানোর জন্য। লুকাস দিনিয়ে, আদ্রিয়ানো চলে যাওয়ার পর বার্সার বাড়তি কোনো লেফটব্যাক ছিল না। অবশেষে সেই অভাব পূরণ হয়েছে। রিয়াল বেটিস থেকে ১৬ দশমিক ৫ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে স্প্যানিশ লেফটব্যাক জুনিয়র ফিরপোকে নিয়ে এসেছে তারা। সেই ফিরপো, যিনি একসময় বার্সা প্রাণভোমরা ও আধুনিক ফুটবলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির মৃত্যু কামনা করতেন।

২০১২ সালে ফিরপোর বেশকিছু টুইটের সন্ধান পাওয়া গেছে, যেখানে তিনি অকথ্য ভাষায় মেসিকে গালাগাল করেছেন, মেসির মৃত্যু কামনা করেছেন। তখন ফিরপো ছিলেন ১৫ বছরের কিশোর। সাত বছর আগে ফিরপো টুইটারে মেসিকে নিয়ে যা যা লিখেছেন, সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ‘ভদ্র’ ভাষার টুইটটিকে অনুবাদ করলে হয়, ‘আশা করব মেসি যেন চোটে আক্রান্ত হয়, খুব তাড়াতাড়ি মারা যায় আর গোল করা বন্ধ করে দেয়।’ অশ্রাব্য গালগাল সংবলিত অন্যান্য টুইট তো ছিলই।

স্বাভাবিকভাবেই রোববার বার্সায় যোগ দেওয়ার পর ফিরপোর দিকে এই টুইট সম্পর্কিত প্রশ্নবাণ ধেয়ে এসেছে। জাতে ডিফেন্ডার ফিরপো সেসব প্রশ্নগুলো ‘ডিফেন্ড’ও করেছেন বেশ ভালোভাবে, ‘এসব টুইটগুলো সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিতে আমার কোনো সমস্যা নেই। তখন আমার বয়স কম ছিল, আবেগের বশে অনেক কিছুই লিখে ফেলেছি। তখন আমার যে সবচেয়ে ভালো বন্ধু ছিল সে বার্সেলোনায় থাকত, মেসি তার সবচেয়ে প্রিয় খেলোয়াড় ছিল।’ বার্সায় এসে ঠিকই মেসির গুণগান করা শুরু করে দিয়েছেন এই তরুণ, ‘কোনো ধরনের সন্দেহ ছাড়াই মেসি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। আমার মতে প্রত্যেক বছর শুধু মেসিকেই ব্যালন ডি’অর দেওয়া এবং অন্য খেলোয়াড়দের জন্য অন্য পুরস্কারের ব্যবস্থা করা উচিত।’

ফিরপোর প্রতি আগ্রহী ছিল আর্সেনাল, লিভারপুলের মতো ক্লাবগুলোও। কিন্তু শেষমেশ বার্সাতেই যোগ দিলেন এই তারকা। বার্সার সঙ্গে তার চুক্তি হয়েছে পাঁচ বছরের। ক্লাব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নতুন আসা এই খেলোয়াড়ের বাই আউট ক্লজ নির্ধারণ করা হয়েছে ২০০ মিলিয়ন ইউরো।

"