সরফরাজকে ছেঁটে ফেলার সুপারিশ আর্থারের

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্ব নিয়ে কথা হয়েছে বিস্তর। কেউ কেউ তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার পক্ষে, অনেকে আবার পাশে দাঁড়িয়ে দায়িত্ব চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন। তবে বাইরের লোক যাই বলুন না কেন, খোদ কোচই সরফরাজকে অধিনায়কত্ব থেকে বরখাস্ত করার পরামর্শ দিয়েছেন।

বিশ্বকাপসহ গত তিন বছরের পারফরম্যান্স মূল্যায়নের জন্য লাহোরে বিশেষ বৈঠকে বসেছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) হর্তাকর্তারা। বৈঠকে অবশ্য ‘উল্লেখযোগ্য ফলাফল’ এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিজের চুক্তির মেয়াদ দুই বছর বাড়ানোর আর্জি জানিয়েছেন কোচ মিকি আর্থার।

সরফরাজ বরখাস্ত হলে তার জায়গা কে নেবেন? বোর্ডের ঘনিষ্ঠ সূত্রে পাকিস্তানের একাধিক পত্রিকা জানিয়েছে, অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডেতে স্পিনার সাদাব খানের নাম প্রস্তাব করেছেন আর্থার, আর টেস্টে আলো ছড়ানো ব্যাটসম্যান বাবর আজম। রিভিউ কমিটির সদস্যদের কাছে সরফরাজের নেতৃত্ব দক্ষতা সম্পর্কে বেশকিছু নেতিবাচক কথা বলেছেন আর্থার। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর এমনই। দেশটির একাধিক মিডিয়ার প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, নতুন টিম ম্যানেজমেন্ট নিয়োগের আগে বোর্ড চেয়ারম্যান এহসান মানির সঙ্গে আরো একদফা আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চান পিসিবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ওয়াসিম খান।

২০১৬-এর মাঝামাঝি থেকে পাকিস্তানের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করছেন আর্থার। ১৫ আগস্ট আর্থারসহ পুরো কোচিং স্টাফের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। এরই মধ্যে অবশ্য শ্রীলঙ্কার হেড কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচ কথা চালাচালি করছেন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডের সঙ্গেও। আর্থারের অধীনে পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় সাফল্য দুই বছর আগে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়। তা ছাড়া আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দলও পাকিস্তান। আর্থারের কোচিংয়ে পাকিস্তান দল সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ভালো করলেও টেস্ট ক্রিকেটে তাদের ছন্নছাড়া অবস্থা।

আর্থারের অনুরোধে তার চুক্তির মেয়াদ বাড়বে কি-না সেটা স্পষ্ট করেনি পাকিস্তান। তবে খবর রটেছে, সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনেকে কোচ করার পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রভাবশালী সাবেক এক ক্রিকেটার।

"