‘কম্পিউটারের মতো বল বিশ্লেষণ করে স্মিথ’

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

বিশ্বকাপ-পরবর্তী অ্যাশেজে দলের পরামর্শক হিসেবে অস্ট্রেলিয়া দলের ড্রেসিংরুম শেয়ার করছেন স্টিভ ওয়াহ। স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের (১৯) পর মহামর্যাদার অ্যাশেজে সর্বাধিক সেঞ্চুরির নিরিখে অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এত দিন দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন তিনিই। তবে রোববার বার্মিংহামের এজবাস্টনে ওয়াহর সেই রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন উত্তরসূরি স্টিভেন স্মিথ।

অনভিপ্রেত ঘটনার জেরে নেতৃত্ব তো খোয়াতে হয়েছিলই, এমনকি এক বছর ক্রিকেট থেকে নির্বাসনেও যেতে হয়েছিল স্মিথকে। কিন্তু তার ব্যাটের ধার যে এতটুকুও কমেনি, পাঁচ দিনের ক্রিকেটে ফিরেই বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। জোড়া শতরানে প্রথম অ্যাশেজ টেস্টে দলকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন সুবিধাজনক জায়গায়। ডন ব্র্যাডম্যানের পর দ্বিতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান টেস্ট ক্রিকেটে পূর্ণ করেছেন ২৫টি শতক। জোড়া ইনিংসে তার মহাকাব্যিক ব্যাটিং দেখে ক্রিকেট অনুরাগীরা বলছেন আধুনিক টেস্ট ক্রিকেটে স্মিথই সেরা।

পরামর্শক হিসেবে দলের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে স্মিথকে খুব কাছ থেকে দেখছেন সাবেক বিশ্বজয়ী অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ। তাই অ্যাশেজ শতরানের নিরিখে তাকে স্পর্শ করার (১০টি করে সেঞ্চুরি) পর স্মিথকে ‘দরাজ প্রশংসাপত্র’ দিলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার চ্যানেল নাইনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়াহ বলেন, ‘স্টিভেন স্মিথের মতো ক্রিকেটার আমি আগে দেখিনি। ম্যাচের আগে ও যেভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে তা অভূতপূর্ব। বিশ্বক্রিকেটে বাকি যেকোনো ব্যাটসম্যানের তুলনায় ও বেশি বল হিট করে। স্মিথ যখন ব্যাট করতে নামে ওর মধ্যে এক অদ্ভুত প্রশান্তি বিরাজ করে। ও জানে বিপক্ষ বোলাররা ওকে আউট করার জন্য কী পরিকল্পনা গ্রহণ করছে এবং তার সমাধান তৈরি করেই ব্যাট হাতে মাঠে নামে স্মিথ।’

এখানেই থেমে থাকেননি ওয়াহ। স্মিথ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিশ্বজয়ী অধিনায়ক আরো বলেন, ‘ব্যাটসম্যান হিসেবে স্মিথের মধ্যে রানক্ষুধা সর্বাধিক। ওর টেকনিক অসামান্য। ও জানে কীভাবে রান করতে হয়। প্রতিটি ডেলিভারিকে ও কম্পিউটারের মতো বিশ্লেষণ করে। স্মিথ নিজের খেলা সম্পর্কে অনেক বেশি সচেতন।’

"