বাংলাদেশকে দিয়েই জিম্বাবুয়ের নির্বাসন শুরু

প্রকাশ : ২২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

বিশ্বকাপ যখন চলছিল, জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল তখন নেদারল্যান্ডস ও আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে আলাদা দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ব্যস্ত। ক্রিকেটের সর্ববৃহৎ মঞ্চে খেলার সুযোগ না পাওয়ায় আফসোস করা জিম্বাবুয়ের সমর্থকরা এখন হয়তো ভাবছে, তবু তো খেলছিল। এখন তো আর খেলতেই পারবে না। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট যে অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্বাসনে চলে গেছে। আর এর প্রথম ধাক্কা লাগছে বাংলাদেশে অনুষ্ঠেয় ত্রিদেশীয় সিরিজে।

আগামী সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে একটি টি-টোয়েন্টি ত্রিদেশীয় সিরিজ হওয়ার কথা ছিল জিম্বাবুয়ে ও আফগানিস্তানকে নিয়ে। কিন্তু আইসিসি জিম্বাবুয়েকে সাময়িক বরখাস্ত করায় সেটি আর হচ্ছে না। এটা জানাই ছিল, আইসিসির ওই বহিষ্কারাদেশের পর জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার কোনো টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারবে না। পরশু জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট (জেডসি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা আসছে মৌসুমে আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) বা ঘরোয়া কোনো প্রতিযোগিতারও আয়োজন করতে পারবে না।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড অবশ্য বলেছিল, বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজটি খেলতে আসার সিদ্ধান্তের বিষয়টি তারা জেডসির ওপরই ছেড়ে দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে না এলে সিরিজটি দুই দলেরই হবে। আইসিসি বহিষ্কার করায় জিম্বাবুয়ের পুরুষ ও নারী দলের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বেও অংশ নেওয়ার বিষয়টিও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। জেডসি তাদের বিবৃতিতে আরো বলেছে, জেডসির চুক্তিতে থাকা খেলোয়াড় আর কোচদের বেতন-ভাতা পাওয়াও এখন অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে গেছে।

বোর্ড পরিচালনায় সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিত করে আইসিসি। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আগামী অক্টোবরের বোর্ড মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হবে।

 

"