আইসিসিকে কটাক্ষ ভনের

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

বুধবার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে কিউইদের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে বিরাট কোহলিদের। দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার পরেও ধোনি-জাদেজার অবিস্মরণীয় পার্টনারশিপ ম্যাচ হারের পর যেমন চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে, ঠিক তেমনই টানা দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে হারের ময়নাতদন্ত খুঁজতে ব্যস্ত টিম ম্যানেজমেন্ট। এমন সময় বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির করা টুইটে বিরাট কোহলির একটি ছবি বিকৃতি করে শিরোনামে মাইকেল ভন।

এমনিতেই সময়োপযোগী টুইট করে সংবাদ শিরোনামে থাকতে পছন্দ করেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত পরশুর ম্যাচের পর আইসিসিকে কটাক্ষ করে কোহলির ছবি বিকৃতি করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করেছেন ভন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বিশ্বকাপ অভিযান শুরুর আগে ব্যাট-বল হাতে ও রাজমুকুট মাথায় ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির একটি ইলাস্ট্রেশন (চিত্রের মাধ্যমে সজ্জিত করে উপস্থাপন) সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয় আইসিসির তরফ থেকে। ক্যাপশন হিসেবে একটি মুকুটের পাশে হ্যাশট্যাগ টিম ইন্ডিয়া ক্রিকেট ওয়ার্ল্ডকাপ ২০১৯ লেখা হয়।

কিন্তু ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার অফিসিয়াল টুইটার পেজে কোহলির এমন ছবি দেখে আইসিসির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনেন অন্য দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। আইসিসির পক্ষ থেকে ভারতীয় দলকে বিশ্বকাপে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে এমন অভিযোগও আসতে থাকে। বুধবার সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে টিম ইন্ডিয়ার ১৮ রানে ম্যাচ হারের পর কোহলির সেই ছবি এডিট করে হাতে ব্যাটের পরিবর্তে বিমানের টিকিট ধরিয়ে দেন ভন।

ছবি বিকৃতি করে তা ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করে সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক ক্যাপশন হিসেবে লেখেন, ‘টিকিট প্লিজ।’ অর্থাৎ বিশ্বকাপ শুরুর আগেই কোহলির মাথায় মুকুট পরিয়ে আইসিসির পোস্ট যে মোটেও অর্থবহ ও যুক্তিযুক্ত ছিল না, ছবি বিকৃতির মাধ্যমে সেটাই মনে করিয়ে দেন ভন। তাই খানিকটা কটাক্ষের ভঙ্গিতেই আইসিসিকে যোগ্য জবাব দিতে ভারত অধিনায়কের ছবি বিকৃতি ঘটিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন ৪৪ বছর বয়সি ইংলিশম্যান।

প্রথম সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের ছুড়ে দেওয়া ২৪০ রান তাড়া করতে নেমে একসময় ৯২ রানে ৬ উইকেট খুইয়ে বসে ভারত। সেখান থেকে ধোনি-জাদেজার ১১৬ রানের পার্টনারশিপ একসময় ভারতকে ফাইনালের দিকে যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ৫৯ বলে জাদেজা ৭৭ রানে আউট হওয়ার পর ১০ বলে দলের যখন ২৫ রান প্রয়োজন, ঠিক তখন গাপটিলের ম্যাজিকাল থ্রোতে শেষ হয়ে যায় সবকিছু। ধোনি রান আউট হয়ে ফিরতেই ভারতীয়দের যাবতীয় আশা ফিকে হয়ে যায়। ভারতের বাকি ৩ উইকেটের পতন হয় মাত্র ৫ রানে। ১৮ রানে ম্যাচ জিতে টানা দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে নিউজিল্যান্ড।

 

 

"