লড়তে হয়েছে আম্পায়ারদের বিরুদ্ধেও!

প্রকাশ : ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

লিটনের ক্যাচটা মাটি থেকে তুলে নিলেন আফগান ফিল্ডার হাসমতউল্লাহ শাহিদি। মাঠে থাকা দুই ইংলিশ ফিল্ড আম্পায়ার প্রাথমিকভাবে আউট দিলেন। তবে মূল সিদ্ধান্তটা ছেড়ে দিলেন থার্ড আম্পায়ারের কাছে। রিপ্লে দেখে টিভি আম্পায়ার আলিম দার মাঠের সহকর্মীদের সিদ্ধান্তই বহাল রাখলেন।

শুধু কী এখানে? ১৮তম ওভারের প্রথম বলে রশিদের বল সাকিবের প্যাডে লাগে। আবেদন করা মাত্র আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার রিচার্ড কেটেলবরা। সাকিব রিভিউ নেন। দেখা যায়, বল অনেক ওপরে, তা কোনো মতেই স্ট্যাম্পে লাগত না। রিভিউ দেখে থার্ড আম্পায়ার ‘নট আউট’ দেন।

ফিল্ডে রিচার্ড কেটেলবরার সঙ্গে ছিলেন মাইকেল গফ। দুজনই ইংলিশ। এদিকে থার্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করছেন পাকিস্তানের আলিম দার। যিনি বাংলাদেশের ম্যাচে দায়িত্বে থাকা মানেই বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দেওয়া, যেগুলোর বেশির ভাগই টাইগারদের প্রতিকূলে চলে যায়।

কালকের ম্যাচে দুর্ভাগ্যজনকভাবে ১৭ বলে ১৬ রান করে বিদায় নেন লিটন দাস। সৌম্য সরকারের পরিবর্তে তামিমের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামেন তিনি। শুরু থেকেই আফগান বোলারদের ওপর চড়াও হন এই স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান। অথচ আলিম দারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের শিকার হলেন তিনি। টিভি রিপ্লেতে পরিষ্কার দেখা যায়, বলটি মাটি স্পর্শ করেছে।

অথচ পরশু লর্ডসে পাকিস্তানের ওপেনার ফখর জামানের এমন একটি ক্যাচ ধরেন বাউন্ডারিতে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির। ফখর জামানের ক্যাচটি তালুবন্দি করে উল্লাসে ফেটে পড়েন ইমরান তাহির। কিন্তু তাতে বাঁধ সাধেন ফিল্ড আম্পায়াররা! বল মাটি স্পর্শ করেছে কি-না, তা নিয়ে নিশ্চিত ছিলেন না আম্পায়াররা। পরে তারা থার্ড আম্পায়ারের সাহায্য নেন। রিপ্লেতে থার্ড আম্পায়ার দেখতে পান, বলটি মাটি স্পর্শ করেছে। এরপরই ক্যাচ নেন ইমরান তাহির। অতঃপর থার্ড আম্পায়ার ‘নট আউট’ সিদ্ধান্ত দিলে জীবন পান ফখর জামান।

 

"