‘সুযোগ পেলে দারুণ কিছু করবে রুবেল’

প্রকাশ : ১৬ জুন ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

বাংলাদেশের এবারের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে তার থেকে জোরে বল করতে পারে না আর কেউ। ডেথ ওভারে দুর্দান্ত বল করে বহুবার জিতিয়েছেন দলকে। অথচ ইংল্যান্ডের বাউন্সি উইকেটে প্রথম তিন ম্যাচে একাদশেই সুযোগ হয়নি রুবেল হোসেনের। চারদিকে নানা সমালোচনা একাদশে নেই কেন রুবেল? সমালোচনার চাপ হোক আর টিম কম্বিনেশন হোক রুবেল ফিরছেন সামনের ম্যাচেই, নিশ্চিত অনেকটাই। গুরু কোর্টনি ওয়ালশ বলছেন, সুযোগ পেলে দারুণ কিছুই করবে রুবেল।

ছিলেন দলের নিয়মিত সদস্য, এরই মাঝে চোটের কারণে দলের বাইরে। চোট কাটিয়ে একাদশে জায়গা করে নেওয়া যেন দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে রুবেল হোসেনের জন্য। মূলত দলের কম্বিনেশনই তাকে রাখছে একাদশের বাইরে। বিশেষ করে সিমিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন মাশরাফি, মুস্তাফিজের সঙ্গে তৃতীয় পেসারের জায়গাটা বেশ ভালোভাবেই পোক্ত করে ফেলেছেন। বল হাতে দলের চাহিদা পূরণ করা সাইফউদ্দিন লোয়ার মিডল অর্ডারে ব্যাট হাতেও দলকে দিচ্ছেন বাড়তি কিছু। ফলে কেবল চার পেসার খেলানোর ভাবনা আসলেই রুবেলের একাদশে জায়গা মিলছে। ইংল্যান্ড কন্ডিশনে অনায়াসেই চার পেসার খেলানো যায়। একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান রাখতে গিয়ে টাইগাররা একাদশের বাইরে রাখছেন দলের সবচেয়ে জোরে বল করতে পারা বোলারকেই। এ নিয়ে কম প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়নি টিম ম্যানেজমেন্টকে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্রিস্টলেই ফেরার কথা ছিল রুবেলের, বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া ম্যাচে টসই হয়নি। তবে আভাস মিলছে ১৭ জুন টন্টনে উইন্ডিজের বিপক্ষে রুবেলের থাকা অনেকটাই নিশ্চিত, দলও মাঠে নামবে চার পেসার নিয়ে। গত বিশ্বকাপেই তার অসাধারণ এক স্পেলে ইংল্যান্ডকে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় করে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনাল খেলে বাংলাদেশ। এবারও সুযোগ পেলে এমন কিছুই করবেন রুবেল, প্রত্যাশা টাইগার পেস বোলিং কোচ ওয়ালশের। ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি রুবেলকে শুরুর ম্যাচগুলো খেলানো হয়নি টিম কম্বিনেশনের কারণে উল্লেখ করে বলেন, ‘এটা টিম ম্যানেজমেন্ট জানে। ও গত মৌসুমেও দারুণ করেছে। এ বছরও ভালো করেছে। টিম কম্বিনেশনের জন্যই ওকে খেলানো যায়নি। তবে সামনে সুযোগ আছে, আশা করি সে সুযোগ ভালোভাবে কাজে লাগাবে। এখনো টুর্নামেন্টের অনেক ম্যাচ বাকি, সে মুখিয়ে আছে খেলার জন্য। নেটে ভালো করছে। যখনই সুযোগ পাবে দারুণ কিছু করবে।’

ওয়ালশ আরো যোগ করেন, ‘টন্টনে কী হবে কে জানে। সাউদাম্পটনে বল ক্যারি করে, গতিও হয়। একজন ফাস্ট বোলার হিসেবে এটি দেখতে আমার ভালোই লাগে। আমাদের ক্ষেত্রে এটা ভাবতে হবে, আমাদের মূল অস্ত্র কি আছে। চার পেসার খেলানো নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। রুবেলকে বল করতে দেখলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।’

 

 

"