ভারত-নিউজিল্যান্ড মহারণও পরিত্যক্ত

বৃষ্টিই খেলছে বিশ্বকাপ!

প্রকাশ : ১৪ জুন ২০১৯, ০০:০০

সাহিদ রহমান অরিন

গত শুক্রবার থেকে আজকের শুক্রবার। ক্যালেন্ডারের পাতা থেকে হারিয়ে যেতে চলেছে আরেকটি সপ্তাহ। এই সময়কালকে ক্রিকেট ইতিহাসের ‘অভিশপ্ত সপ্তাহ’ হিসেবে অভিহিত করা যেতেই পারে। খেলাটার সর্ববৃহৎ আসর চলছে। কিন্তু খেলোয়াড়রা বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেলেন কই? গত ছয় দিনে চার-চারটি ম্যাচ গিলে ফেলল সর্বনাশা বৃষ্টি, যার সর্বশেষ শিকার কালকের ভারত-নিউজিল্যান্ড মহারণ।

একমাত্র দল হিসেবে বিশ্বকাপে অপরাজিত রয়ে যাওয়ার ম্যাচে ব্যাটে বল লাগা তো দূরের কথা, মেঘের গর্জন-আকাশের আর্তনাদে টসটাই হলো না। ফলে আরো কিছুদিনের জন্য অপরাজিতই রয়ে গেল দুই দল। পয়েন্ট ভাগাভাগি হওয়ায় নিজেদের অবস্থানটাকে আরো সুদৃঢ় করল নিউজিল্যান্ড। ৪ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে তারা। আর বিজোড় পয়েন্ট নিয়ে ভারত উঠেছে এলো তিন নম্বরে। কোহলি-ধোনিদের সংগ্রহ ৫ পয়েন্ট।

নটিংহামে গত কয়েক দিন ধরেই একটানা বৃষ্টি পড়ছিল। পূর্বাভাস ছিল, বৃষ্টির বাগড়ায় ভেস্তে যেতে পারে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ। সেটাই হলো। বৃহস্পতিবার এই বৃষ্টি থামছে তো এই শুরু হচ্ছে। একাধিকবার মাঠ পর্যবেক্ষণও করতে হয়েছে আম্পায়ারদের। শেষমেশ স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়) ঘোষণা দেওয়া হলো ম্যাচ আর হচ্ছে না। ফলে বল হাতে ‘বিদ্যুৎ’ বোল্টের ঝলকানি দেখা গেল না। কোহলির মাস্টারক্লাস স্ট্রোক, হার্দিকের পেশি শক্তির প্রদর্শনী থেকেও বঞ্চিত হলেন কয়েকশ কোটি ক্রিকেট অনুরাগী। তবে ক্রিকেট পাগলদের মনে বিদ্রুপসুলভ খোঁচা দিয়ে ঠিকই বিশ্ব রেকর্ড গড়ে ফেলল ‘বেরসিক’ বৃষ্টি! চলতি বিশ্বকাপে চতুর্থ ম্যাচ ভেস্তে যাওয়ায় এই রেকর্ডটাকে আরো মজবুত করে নিল সে। যেখানে আগের বিশ্বকাপগুলোতে সর্বাধিক দুটো ম্যাচ থাবা মেরে কেড়ে নিয়েছে, সেখানে এই সপ্তাহেই এক হালি ম্যাচে জয় তুলে নিল বৃষ্টি!

বিরূপ প্রকৃতির কাছে মাথা নোয়ানোর প্রভাবটা এখন টের পাওয়া না গেলেও রাউন্ড রবিন পর্বের শেষের ভাগে ঠিকই বোঝা যাবে এই পয়েন্ট ভাগের গুরুত্ব। পয়েন্ট তালিকায় একে-অপরের ঘাড়ের কাছে যখন নিঃশ্বাস ফেলবে, তখন বৃষ্টির কারণে পয়েন্ট নষ্ট হওয়ার জন্য হাহুতাশ করতে থাকবে দলগুলো। তবে ভবিষ্যৎ ব্যতিরেকে যেখানে বর্তমান নিয়েই ভাবা হচ্ছে, সেখানে দলগুলোর হাত-পা এখন বৃষ্টিতে বাঁধা। আপাতত বৃষ্টিই যে বিশ্বকাপ খেলছে।

 

"