ড্র করে বাছাই পর্বে বাংলাদেশ

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চলছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ ধামাকা। বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছে বাংলাদেশের স্বপ্নঘেরা ম্যাচ। ক্রিকেটের কষ্টকাতর দিনেই ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রাক বাছাই পর্ব নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। ব্রিস্টলে ক্রিকেট আনন্দ বৃষ্টিতে ভেসে গেলেও ফুটবলের বিশ্বকাপে টিকে থাকার উৎসব পালিত হয়েছে ঢাকায়। গতকাল সন্ধ্যায় বাংলাদেশ লাওসের সঙ্গে ড্র করে স্বপ্নপূরণের একধাপ অর্জন করেছে। দুর্দান্ত খেললেও গোল পায়নি বাংলাদেশ। কমপক্ষে ৩টি গোলের সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেছেন আক্রমণভাগে ফুটবলাররা। গোলশূন্য ম্যাচের আগে প্রথম লেগে এই লাওসকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে বাংলাদেশ স্বপ্নের যাত্রাপথে এগিয়ে ছিল। হোম এবং অ্যাওয়ে ম্যাচের দুই লেগ মিলিয়ে বাংলাদেশ ১-০ ব্যবধানে জিতে বাংলাদেশ উঠে গেল দ্বিতীয় পর্বে।

বিশ্বকাপের প্রাক বাছাইয়ের দ্বিতীয় লেগে গতকাল সন্ধ্যা ৭টায় ঘরের মাঠ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নেমেছিল লাল-সবুজে উদ্ভাসিত তারুণ্যদীপ্ত বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ লাওসের সারাক্ষণই ব্যস্ত ছিল রক্ষণদুর্গ সামলাতে। মাঠে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে থাকে বাংলাদেশ। ম্যাচের ৪ মিনিটের মধ্যেই ফাউল করে লাওসের ফুটবলের শৈল্পিক সৌন্দর্য নষ্ট করেন। যার কারণে ম্যাচ রেফারি হলুদ কার্ড দিয়ে সতর্ক করেন ওই ফুটবলারকে। পুরো শক্তির দল নিয়ে গতকাল বেশকিছু গোলের সুযোগ পায় স্বাগতিকরা। তবে কাজের কাজ কিছুই করতে পারেনি তারা। অষ্টম মিনিটে জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি-কিকের পর বল পেয়ে জালে পাঠাতে পারেননি ইয়াসিন খান। ১৭ মিনিটে নাবীব নেওয়াজ জীবন গোলরক্ষক বরাবর শট নিলে আবারও সুযোগ নষ্ট হয়। বিরতির পর বিপলু আহমেদের বদলি নামা মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ৫৩ মিনিটে ক্রসে দুর্বল হেডে ফের সুযোগ নষ্ট করেন জীবন। ৭৮তম মিনিটে জীবনের ক্রসে আরেক বদলি ফরওয়ার্ড মাহবুবুর রহমান সুফিল গোলমুখ থেকে ঠিক মতো পায়ে বল ছোঁয়াতে পারেননি। ৮৮ মিনিটে ইব্রাহিম হাজার হাজার দর্শকদের হতাশা বাড়ান।

নিদেনপক্ষে ড্র করলেই কাতার বিশ্বকাপের মূল বাছাই পর্বে খেলতে পারবে বাংলাদেশ। এমন সমীকরণ নিয়ে খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ। আর যদি এই ম্যাচে হেরে যেত আগামী চার বছর ফিফা ও এএফসি কোনো ম্যাচ খেলতে পারবে না বাংলাদেশ। বাংলাদেশের কাছে এই ম্যাচটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর আগে লাওসের সঙ্গে ৩টি ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। তাতে দুটিতে জয় ও একটিতে ড্র। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে অবশ্য লাওস এগিয়ে, ১৮৪তম। বাংলাদেশ আছে ১৮৮তম স্থানে। এই র‌্যাঙ্কিংয়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও প্রথম লেগে ভিয়েনতিয়েনে লাওসকে হারিয়ে আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে বাংলাদেশের। ফিরতি লেগে নিজেদের মাঠেই খেলা থাকায় বাংলাদেশ দল বাড়তি সুবিধা পেয়েছে। ফরওয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোলের দেখা পায়নি বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ৪০টি দল আট গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে। প্রতি গ্রুপে থাকবে পাঁচটি দল। রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ম্যাচে মুখোমুখি হবে দলগুলো। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন এবং সেরা চার রানার্স-আপ বাছাই পর্বের পরবর্তী ধাপে খেলার সুযোগ পাবে।

 

"