বিতর্কিত আম্পায়ারিংয়ের দিনে অস্ট্রেলিয়ার জয়

প্রকাশ : ০৮ জুন ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

দলের বিপদের সময় ত্রাতা হয়ে এলেন লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান ন্যাথান কোল্টার-নাইল। ঝড় তুলে গড়লেন বিশ্বকাপে আট নম্বরে নেমে সর্বোচ্চ রানের কীর্তি। বোলিংয়ে পথ দেখালেন মিচেল স্টার্ক। এবারের আসরে প্রথম বোলার হিসেবে ৫ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়াকে এনে দিলেন দারুণ জয়।

নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে বৃহস্পতিবার ক্যারিবিয়ানদের ১৫ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ২৮৮ রান তাড়ায় ৯ উইকেটে ২৭৩ রানে থামে জেসন হোল্ডারের দল।

অস্ট্রেলিয়ার জয়ের দুই নায়ক কোল্টার-নাইল। পাল্টা আক্রমণে ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে কোল্টার-নাইল ৬০ বলে খেলেন ৯২ রানের ঝড়ো ইনিংস। বাঁহাতি পেসার স্টার্ক ৪৬ রানে নেন ৫ উইকেট। ৪৬তম ওভারে জোড়া আঘাতে কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ও হোল্ডারকে ফিরিয়ে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেন তিনি।

শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের দারুণ বোলিংয়ে রোমাঞ্চকর ম্যাচে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচের শুরুতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ান পেসাররা।

এদিকে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১৫ রানে হেরে যাওয়া ম্যাচের আম্পায়ারদের সমালোচনা করেছেন মাইকেল হোল্ডিং। ক্যারিবিয়ান এই বোলিং কিংবদন্তির ভাষায় ম্যাচে আম্পায়ারিং ছিল জঘন্য।

ট্রেন্ট ব্রিজে বৃহস্পতিবারের ম্যাচে স্কাই টেলিভিশনের ধারাভাষ্যকার ছিলেন হোল্ডিং। তিনি দুই আম্পায়ার নিউজিল্যান্ডের ক্রিস গ্যাফানি ও শ্রীলঙ্কার রুচিরা পালিয়াগুরুগের সমালোচনা করেন। ২৮৮ রান তাড়ায় নেমে প্রথম দুইবার আম্পায়ারের আউটের সিদ্ধান্তে রিভিউ নিয়ে টিকে যান গেইল। তৃতীয় রিভিউয়ে ব্যর্থ হয়ে শেষ হয় তার ১৭ বলে খেলা ২১ রানের ইনিংস। তবে এরপরই টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, আগের বলটিতে ওভারস্টেপ করেছিলেন মিচেল স্টার্ক। আম্পায়ারের নজর এড়িয়ে যাওয়ায় ডাকেননি ‘নো’। তিনি ভুল না করলে আউট হওয়া বলটিতে ফ্রি হিট পেতেন ক্যারিবিয়ান ওপেনার। সে সময় ধারাভাষ্যে থাকা ৬৫ বছর বয়সি হোল্ডিং বলেন, এই ম্যাচের আম্পায়ারিং জঘন্য।

দুই বল পর এলবিডব্লিউর আবেদনে সাড়া দিয়ে আঙুল তোলেন গ্যাফানি। এবারও রিভিউ নেন ব্যাটসম্যান। বল ট্র্যাকিংয়ে দেখা যায় লেগ স্টাম্পের বাইরে দিয়ে যেত বল। রিভিউ নিয়ে দুইবার বাঁচেন জেসন হোল্ডার। তবে তিনি আম্পায়ারদের ওই সিদ্ধান্তগুলোকে দেখছেন অনিচ্ছাকৃত ভুল হিসেবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া : ৪৯ ওভারে ২৮৮ (স্মিথ ৭৩, কেয়ারি ৪৫, কোল্টার-নাইল ৯২ ; টমাস ১০-০-৬৩-২, কটরেল ৯-০-৫৬-২, রাসেল ৮-০-৪১-২, ব্র্যাথওয়েট ১০-০-৬৭-৩)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ৫০ ওভারে ২৭৩/৯ (গেইল ২১, হোপ ৬৮, পুরান ৪০, হেটমায়ার ২১, হোল্ডার ৫১*; স্টার্ক ১০-১-৪৬-৫, কামিন্স ১০-৩-৪১-২, জ্যাম্পা ১০-৫৮-১)

জয় : অস্ট্রেলিয়া ১৫ রানে জয়ী

ম্যাচসেরা : ন্যাথান কোল্টার-নাইল

 

"