চ্যাম্পিয়নস লিগের ফরম্যাট পরিবর্তন নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফরম্যাট পাল্টাতে উয়েফা যে পরিকল্পনা নিয়েছে, তাতে আধিপত্য বাড়তে পারে ধনী ক্লাবগুলোর। ফলে চলতি মৌসুমে আয়াক্সের এবার সেমিফাইনাল পর্যন্ত যে ছড়ি ঘোরাতে পেরেছে, সেই দৃশ্য আর নাও দেখা যেতে পারে। হয়তো প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলবে শুধু ইউরোপের এলিট ক্লাবগুলোর মধ্যেই।

ইউরোপীয় ফুটবল সংস্থার এ রকমই পরিকল্পনার কথা ফাঁস করে দিয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। মার্কিন দৈনিকটির হাতে এসেছে উয়েফার প্রস্তাবের নথিও। যে প্রস্তাব ইউরোপের সব ক্লাবকে জানানো হয়েছে।

সেই নথি অনুযায়ী, ২০২৪ থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগ যেমন ৩২টি দলের আছে, সে রকমই থাকবে। কিন্তু গ্রুপ আটটির পরিবর্তে হবে চারটি। এক একটি গ্রুপে থাকবে আটটি করে দল। এই স্ট্রাকচারে বিভিন্ন দেশের ঘরোয়া লিগই কার্যত অচল হয়ে যেতে পারে। এই ৩২ দলের নিচে থাকবে দ্বিতীয় ডিভিশন। সেখানেও থাকবে ৩২টি দল। তার নিচে থাকবে তৃতীয় ডিভিশন, যা হবে ৬৪ দলের।

এই প্রস্তাবের অন্যতম সমর্থক জুভেন্টাস ও সিরিএ’র বড় ক্লাবগুলো। স্পেনের ক্লাবগুলোও সমর্থন জানিয়েছে অথচ, স্পেনের ফুটবল সংস্থার প্রধান জাভিয়ের একেবারেই এই প্রস্তাবে রাজি নন।

কেন আট দলের চারটি গ্রুপ? উয়েফা চেয়েছে চারটি গ্রুপে আটটি দলকে জায়গা দিলে বেশকিছু বড় দল থাকবে এক গ্রুপে। ফলে গ্রুপ পর্যায়েই ভালো কয়েকটি ম্যাচ হবে। যা টিভি সম্প্রচারকরা চায়। তিনটি গ্রুপের মধ্যে অবনমন ও উত্থান থাকলেও তা হবে মাত্র চারটি দলের। ফলে ধনী ও বড় ক্লাবগুলোর আধিপত্য থাকবে প্রথম ডিভিশনে। সেখানে আয়াক্সের মতো মাঝারি দল যে বড় দলগুলোর বিরুদ্ধে লড়ে সেমিফাইনাল পর্যন্ত ওঠতে পেরেছে, তার সম্ভাবনা কমবে।

ফ্রান্সের স্যাঁতেতিয়েন ক্লাবের মালিক বের্নার্দ কাইয়াজো অন্য আরো একটি দিক তুলে ধরেছেন, এই সিস্টেম চালু হলে, ছোট ক্লাবগুলো ভালো ইনভেস্টর পাবে না। চ্যাম্পিয়নস লিগে বড় দলগুলোর সঙ্গে খেলার সম্ভাবনা কমে গেলে, কেন তারা আগ্রহী হবে ছোট ক্লাবে বিনিয়োগ করতে?

"