এভাবে ফিরতে চাননি মেসি-রোনালদো

প্রকাশ : ২৪ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

জাদুকর ফিরবেন। আর্জেন্টিনা তো বটে; বিশ্ব ফুটবল দুনিয়া ছিল অপেক্ষমাণ। অবশেষে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে আকাশি-নীল জার্সিতে ক্লিন শেভ করে জাদুকর ফিরলেন। কিন্তু সেই ফেরা হলো শোচনীয়। স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেট্রোপলিটন স্টেডিয়াম দেখল জাদুকরের মাথা নিচু করে হেঁটে যাওয়া। এভাবেই তো তিনি রাশিয়া বিশ্বকাপে মাঠ ছেড়েছিলেন জার্সিতে মুখ ঢেকে। অবশ্য সেই বেদনার সময় গড়িয়েছে আট মাসে। দীর্ঘ সময়ের স্বেচ্ছায় নির্বাসন কাটিয়ে জাতীয় দলের ফেরাটা স্মরণীয় হলো না ফুটবল জাদুকর লিওনেল মেসির। ল্যাটিন আমেরিকার ফ্রেন্ডলি ম্যাচে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ৩-১ ব্যবধানে হেরে গেছে ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে।

সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ইস্যুতে তেমন একটা স্বস্তিতে নেই ভেনিজুয়েলা। হুগো শ্যাভেজের উত্তরসূরি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চান বিরোধীরা। এমন একটা পরিস্থিতিতে ফুটবল পরাশক্তি আর্জেন্টিনাকে বিধ্বস্ত করাটা এক পশলা বৃষ্টি হয়ে এসেছে ভেনিজুয়েলানদের মনে। গতকাল শনিবার ভোরে পুরো ম্যাচে লা আলবিসেলেস্তেদের কোণঠাসা করে রেখেছিল কোচ রাফায়েল দুদামেলের শিষ্যরা। মাত্র ৬ মিনিটে আর্জেন্টাইন সমর্থকদের নিশ্চুপ করে দেয় ভেনিজুয়েলার সলোমন রন্ডন। বিরতিতে যাওয়ার ১ মিনিট আগে ব্যবধানটা দ্বিগুণ করেন জন মুরিলো।

মাঠের এক পাশে মলিন বদনে তা দেখে গেল মেসিকে। ৫৯ মিনিটে অবশ্য জিওভানি লো সেলসোর পাস থেকে গোল করে আর্জেন্টাইনদের ম্যাচে ফেরার আভাস তৈরি করেছিলেন লতারো মার্টিনেজ। কিন্তু লিওনেল স্কালোনির শিষ্যদের সেটিই একমাত্র সফলতা। উল্টো ৭৫ মিনিটে বদলি খেলোয়াড় জোসেফ মার্টিনেজ স্পট কিক থেকে তৃতীয় গোল হজম করে বসে আর্জেন্টিনা। ডি-বক্সে ফরওয়ার্ড ডারউইনকে ডিফেন্ডার হুয়ান ফইথ ফাউল করলে পেনাল্টি পায় ভেনিজুয়েলা।

৮৬ মিনিটে মেসির ক্রসে অরক্ষিত রিভার প্লেটের ফরওয়ার্ড মাতিয়াস সুয়ারেসের হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি আর্জেন্টিনা। রাশিয়া বিশ্বকাপের আরেকবার মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়তে হয় মেসিকে।

অথচ ৩১ বছর বয়সি ফরওয়ার্ডকে জাতীয় দলে ফেরাতে কত কাঠ-খড় যে পুড়াতে হয়েছে আর্জেন্টাইনদের। ম্যারাডোনা-তেভেজদের মতো কিংবদন্তিরা বারবার অনুরোধ করেছেন মেসিকে আকাশি-নীল জার্সিতে ফিরতে। নতুন কোচ স্কালোনি তো বলতে গেলে তার পিছেই পড়ে থাকলেন সর্বদা। সামনের কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টের প্রস্তুতির আগে মেসি ফিরলেন অভিমান ভেঙে। কিন্তু সেই অভিমান রূপ নিল হতাশায়। বার্সেলোনার হয়ে তুঙ্গে থাকা ফর্মটা টেনে আনতে পারলেন না জাতীয় দলের জার্সিতে।

হতাশাটা দ্বিগুণ হয়েছে চোট পাওয়ায়। চোটের কারণে আর্জেন্টিনার হয়ে পরের ম্যাচে তানজিয়ার বিপক্ষে খেলবেন না মেসি। এছাড়া মিডফিল্ডার গনজালো মার্টিনেসও ছিটকে গেছেন চোটের জন্য।

অন্যদিকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মেসির দিকে তাকিয়ে কিছুটা সান্ত¡না খুঁজতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অন্তত নিজের প্রত্যাবর্তনের দিনে পরাজয় বরণ করতে হয়নি পর্তুগিজ উইঙ্গারকে। মেসির মতো রোনালদোও দীর্ঘ আট মাস স্বেচ্ছায় নির্বাসন কাটিয়ে জাতীয় দলে ফিরেছেন গতকাল। দুই ফুটবল নায়ক রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়েছিল শেষ ষোলো থেকে। পরশুর লিসবনে ইউক্রেনের বিপক্ষে ম্যাচে পাওয়া কয়েকটা সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন সিআর সেভেন। আর তাতেই ২০২০ ইউরো কোয়ালিফায়ারের ‘বি’ গ্রুপে পয়েন্ট খুইয়েছে ফের্নান্দো সান্তোসের দল।

 

ফলাফল

আর্জেন্টিনা ১-৩ ভেনিজুয়েলা

উরুগুয়ে ৩-০ উজবেকিস্তান

মেক্সিকো ৩-১ চিলি

জাপান ০-১ কলম্বিয়া

দ. কোরিয়া ১-০ বলিভিয়া

 

"