কিউবায় মিলল ম্যারাডোনার আরো ৩ সন্তান

প্রকাশ : ১০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

গুঞ্জন চলছিল অনেক দিন ধরেই। এবার সত্যি হলো। কিউবায় তার আরো তিনজন সন্তান থাকার কথা স্বীকার করেছেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা।

আর্জেন্টিনার ১৯৮৬ বিশ্বকাপের মহানায়ক একটা সময় তার সাবেক দুজন স্ত্রী ছাড়া অন্য কোনো সন্তানের কথা অস্বীকার করেছিলেন। এখন তার ‘স্বীকৃত’ সন্তান হলো মোট আটজন। ৫৮ বছর বয়সি ম্যারাডোনার আইনজীবী মাতিয়াস মোরাই বলেছেন, ‘কিউবায় ম্যারাডোনার তিনজন সন্তান রয়েছে এবং তারা স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছে। দুই নারী থেকে তিনজন সন্তান রয়েছে। ম্যারাডোনা তাদের দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত।’

কোকেনের আসক্তি থেকে পুনর্বাসনের জন্য ২০০০ থেকে ২০০৫ সালের মধ্যে কিউবার রাজধানী হাভানাতে অনেকবার গিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। কিউবার তখনকার প্রেসিডেন্ট ফিদেল কাস্ত্রোর সঙ্গে বেশ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। কিউবার এই বিপ্লবী নেতার মুখের একটি ট্যাটুও আঁকা আছে ম্যারাডোনার শরীরে।

ম্যারাডোনার সাবেক স্ত্রী ক্লদিয়া ভিলাফেনের ঘরে আছে দুই মেয়ে ৩১ বছর বয়সি দালমা ও ২৯ বছর বয়সি জিয়ান্নিনা। ২০ বছরের বিবাহিত সম্পর্কের পর ২০০৩ সালে ক্লদিয়ার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় ম্যারাডোনার।

৩২ বছর বয়সি ডিয়েগো জুনিয়র ও ২২ বছর বয়সি ইয়ানা নামে ম্যারাডোনার এক ছেলে এবং এক মেয়ে সন্তান আছে সাবেক বান্ধবী ক্রিস্টিনা সিনাগ্রার ঘরে। শুরুতে এই দুই সন্তানকে স্বীকৃতি দেননি ম্যারাডোনা। পরে বিষয়টি আদালতে গড়ালে তিনি স্বীকৃতি দেন।

ম্যারাডোনার আরেকজন সন্তানের জন্ম আরেক সাবেক বান্ধবী ভেরোনিকা ওজেদার গর্ভে। ডিয়েগো ফার্নান্দো নামের এই ছেলের বয়স এখন ছয় বছর। কিউবায় তিন সন্তান থাকার কথা প্রকাশ হওয়ার পর ম্যারাডোনার মেয়ে জিয়ান্নিনা ইন্সটাগ্রামে মজা করে লিখেছেন ‘১১ জন হতে তোমার আর মাত্র তিন সন্তান দরকার। তুমি পারবে!’ জিয়ান্নিনার ইঙ্গিতটা বুঝতে পারছেন নিশ্চয়!

 

"