আন্ডারডগ ভাবতে আপত্তি নেই বাংলাদেশের

প্রকাশ : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

শক্তি-সামর্থ্য, মুখোমুখি লড়াইয়ের ফল, ভেন্যু তথা সার্বিকভাবেই বাংলাদেশের চেয়ে বেশ এগিয়ে নিউজিল্যান্ড। তার ওপর ইনজুরি কারণে সেরা দল পাচ্ছে না বাংলাদেশ। স্বাভাবিকভাবেই আজ থেকে শুরু হওয়া ওয়ানডে সিরিজে আন্ডারডগ টাইগাররা। নিজেদের এমনটা ভাবতে আপত্তি নেই বাংলাদেশের প্রধান কোচ স্টিভে রোডসের।

এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো নিউজিল্যান্ড সফরে দল, কিন্তু ইতিহাস বলছে, সুন্দর দেশটিতে এখনো পর্যন্ত স্বাগতিকদের বিপক্ষে জয়ের স্বাদ পাওয়া হয়নি। এই অবস্থায় মাশরাফি-তামিমদের যদি কেউ আন্ডারডগ বলে, সেটি অস্বীকার করার কোনো উপায়ও নেই।

বাংলাদেশ দলের ইংলিশ কোচ রোডস সেটি স্বীকার করে নিলেন। কাল তিনি বলেছেন, ‘ব্যাপারটা খারাপ নয়। আন্ডারডগ হিসেবে আমরা অনেক সময় অনেককে অবাক করে দিয়েছি। আমি মনে করি নিউজিল্যান্ডও জানে বাংলাদেশকে হারাতে হলে তাদের খুব ভালো ক্রিকেটই খেলতে হবে।’

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তাদেরই হারানো কতটা কঠিন সেটাও বললেন বাংলাদেশ কোচ, ‘আমরা জানি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের মাটিতে প্রথম জয় তুলে নেওয়াটা কত কঠিন, এ বাস্তবতাটা আমরা স্বীকার করি।’

অবশ্য মুখে যা-ই বলুন রোডস, মনের মধ্যে একটা খচখচানি তার আছেই। সফরের ঠিক আগে দিয়ে হারিয়ে বসলেন সাকিব আল হাসানকে। দল ঘোষণার পরে লিগামেন্ট ছিঁড়ে ছিটকে গেলেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা তাসকিন আহমেদ। অলরাউন্ডার হিসেবে সাকিবকে হারানো দলের জন্য বিরাট ধাক্কা। রোডস সেটি স্বীকারও করেছেন। বলেছেন এই দুই ক্রিকেটার না থাকায় সফরটি বাংলাদেশের জন্য অনেক কঠিন হয়ে গেছে।

বিপিএল খেলেই নিউজিল্যান্ডে পা রেখেছে বাংলাদেশ। এক মাসের একটু বেশি সময় ধরে দেশের তিনটি শহরে অনুষ্ঠিত এই টি-টোয়েন্টি লিগ সফরের প্রস্তুতিতে কতটা অবদান রেখেছে সেটি নিয়ে সন্দেহ আছে বাংলাদেশ কোচের, ‘বিপিএল খুব কঠিন একটা টুর্নামেন্ট। অনেক ইতিবাচক ব্যাপার আছে এই টুর্নামেন্ট থেকে। তবে টুর্নামেন্টটা খেলোয়াড়দের শরীরের ওপর যথেষ্ট প্রভাব রেখে গেছে। এটির কারণে নিউজিল্যান্ড সফরের প্রস্তুতিটাও খুবব আদর্শ হয়নি। আমি এখন কেবল এটাই বিশ্বাস করি নির্দিষ্ট দিনে আমার খেলোয়াড়েরা প্রমাণ দেবে যে ভালো ক্রিকেট তারাও খেলতে জানে।’

"