রামোসের ওপর ক্ষেপেছেন পিকে

প্রকাশ : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক
ama ami

‘এল ক্লাসিকো’ মাঠে গড়াবে আর বিতর্ক থাকবে না তা কীভাবে হয়! এমনিতে ম্যাচের আগে থেকে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাবের সমর্থকদের মধ্যে ঝড় বইয়ে যায়। মাঝেমধ্যে মাঠ ও মাঠের বাইরেও প্রভাব ফেলে সেই ঝড়। বিতর্ক ছাড়া কোনো রিয়াল মাদ্রিদ-বার্সেলোনার ম্যাচ শেষ হয়েছে এমন নজির ইতিহাসে নেই। গত অক্টোবরের এল ক্লাসিকোতে তো বিধ্বস্ত হওয়ার পর ব্লাঙ্কোসদের দায়িত্ব ছাড়তে হয়েছিল কোচ হুলেন লোপেতেগিকে।

তবে পরশু ন্যু-ক্যাম্পের ক্লাসিকোতে ছিল না সেই আগুন। যা একটু ছড়িয়েছে সার্জিও রামোসকে নিয়ে। রিয়াল অধিনায়ককে অবশ্য বিতর্কের মুখে পড়া নতুন নয়। রামোসকে লাল কার্ড দেখানো উচিত ছিল বলে মনে করেন কাতালানদের অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে।

ন্যু-ক্যাম্পে কোপা ডেল রে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচের ১০ মিনিটে নেলসন সেমেদোকে বাজেভাবে ফাউল করেন রামোস। তার জন্য হলুদ কার্ডও দেখতে হয় ৩২ বছর বয়সি স্প্যানিশ ডিফেন্ডারকে। কিন্তু ব্লাঙ্কোস অধিনায়কের স্বভাবটাই যে আক্রমণাত্মক। দ্বিতীয়ার্ধে আর্থারকেও ফাউল করেন তিনি। কিন্তু এবার ছাড় পেয়ে যান রেফারির। আর তাতেই ক্ষেপেছেন রামোসের জাতীয় দলের সতীর্থ পিকে। ম্যাচের পর সেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি, ‘সব মিলে তিনি (রেফারি) ভালোভাবেই ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। সার্জিওর একটা কার্ড প্রাপ্য ছিল। কিন্তু আমরা কী করতে পারি?’

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছাড়া এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বার্সার মুখোমুখি হয়েছে রিয়াল। পরশু ম্যাচ দিয়ে অলহোয়াইটরা প্রমাণ করেছে, তারা সিআর সেভেনের অভাবটা কতটুকু গুছিয়ে নিয়েছে। উল্টো শুরুতেই ধাক্কা দিয়েছে কোচ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর শিষ্যরা। ৬ মিনিটে করিম বেনজেমার বুদ্ধিদীপ্ত পাস থেকে রিয়ালকে এগিয়ে দেন লুকাস ভাসকুয়েজ। ব্যবধানটাও তারা ধরে রেখেছিল বিরতির আগ পর্যন্ত।

দ্বিতীয়ার্ধে বার্সাকে সমতায় ফেরান ম্যালকম। অভিষেক এল ক্লাসিকোতে ৫৭ মিনিটে গোল করে কাতালানদের বাঁচান এই ব্রাজিয়িান ফরওয়ার্ড। অক্টোবরের ক্লাসিকোতে স্কোয়াডে থাকলেও মাঠে নামেননি এই সাবেক বুর্দো তারকা। পরশু ক্লাসিকোতে অভিষেক হয়েছে আরেক ব্রাজিলিয়ান ফরওয়ার্ড ভিনিসিয়াস জুনিয়রেরও। আর কোচ হিসেবে প্রথমবার বার্সার বিপক্ষে ডাগআউটে দাঁড়িয়েছেন সোলারি।

ক্লাসিকোতে লিওনেল মেসি থাকবেন কি না তা অনিশ্চিত ছিল। কিন্তু বার্সার মাঝমাঠে ব্যর্থ ফিলিপ্পে কুতিনহোর পরিবর্তে ৬৩ মিনিটে মাঠে নামেন আর্জেন্টাইন ফরওয়ার্ড। তার এক মিনিট পরই ভিনিসিয়াসের পরিবর্তে রিয়াল মাঠে নামায় গ্যারেথ বেলকে। কিন্তু দুই তারকার উপস্থিতিতেও ম্যাচের ফল পরিবর্তন হয়নি।

অবশ্য চোট নিয়ে নিষ্প্রভ ম্যাচই উপহার দিয়েছেন মেসি। চোটের কারণেই ভালো খেলতে পারেননি মনে করেন বার্সা কোচ এরনেস্তো ভালভার্দে, ‘তার অস্বস্তি ছিল। সে তুলনামূলক ভালো ছিল না কিন্তু আমরা ভেবেছিলাম তার দ্বিতীয়ার্ধে নামাটাই ভালো হবে।

গত চারবারসহ কোপা ডেল রে’র সর্বোচ্চ ৩০ বারের চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার বিপক্ষে অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে শেষ চারের ফিরতি পর্বে মাঠে নামবে রিয়াল মাদ্রিদ।

 

"