লায়ন-জাদুতে সমতায় ফিরল অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশ : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক
ama ami

বাউন্সি উইকেট হিসেবে ঐতিহাসিকভাবে স্বীকৃতি আছে পার্থের পিচের। সেই পিচ নিয়ে দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হওয়ার আগে কম কথা হয়নি। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং জানিয়েছিলেন, এবার ইতিহাসের সেরা গতিময় পিচ হতে যাচ্ছে পার্থ। পন্টিংয়ের সেই কথাতেই বোধহয় প্রভাবিত হয়ে চার পেসার নিয়ে খেলতে নামলেন বিরাট কোহলি। কিন্তু উল্টো বাজিমাত করল স্পিনাররা। সফরকারী ভারতকে একাই নাগপাশ বন্ধনে আবদ্ধ করে ফেললেন অজি স্পিনার নাথান লায়ন। দুই ইনিংসে নিয়েছেন ৮ উইকেট নিয়ে ভারতকে একাই গুটিয়ে দেন তিনি। ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও উঠেছে লায়নের হাতে। পার্থ টেস্টে ১৪৬ রানের বিশাল জয়ে সিরিজে ১-১ এ সমতায় ফিরেছে অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের তৃতীয় টেস্ট শুরু হবে ২৬ ডিসেম্বর, মেলবোর্নে।

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক কোহলি বলেন, ‘আমরা যখন পিচটা দেখলাম, আমাদের মনে হয়েছিল চারজন পেসারই যথেষ্ট টেস্টটা জেতার জন্য। রবীন্দ্র জাদেজাকে নেওয়ার কথা আমাদের মাথাতেই আসেনি। কিন্তু ওদিকে নাথান লায়ন অনেক ভালো বল করেছে। স্পিন দিয়ে যে এই পিচে জেতা যাবে সেটা আমরা ভেবেই দেখিনি।’

ম্যাচের ভাগ্যটা নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল ম্যাচের চতুর্থ দিনেই। তবে বাকি ছিল আনুষ্ঠানিকতার। শেষ পর্যন্ত ২৮৭ রানের জবাবে ভারত তুলতে পারে ১৪০ রান। কাল ৭ রান যোগ করতেই হারিয়ে ফেলে ষষ্ঠ উইকেট। হনুমা বিহারিকে (২৮) হারিসের হাতে বন্দি করে সাজঘরে ফেরান মিশেল স্টার্ক। পরে টেল এন্ডার উমেশ যাদবকে নিয়ে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টার করেন আগের দিনের অপরাজিত ব্যাটসম্যান ঋষভ প্যান্ট। স্কোরবোর্ডে ১৩৭ রান হতেই লায়নের বলে হ্যান্ডসকম্বকে ক্যাচ দিয়ে তিনিও ফিরে যান ব্যক্তিগত ৩০ রানে। এরপরই অজি বোলারদের সামনে আত্মহুতি দেন যাদব (২), ঈশান্ত (০), শামি (০*), বুমরাহ (০)। শেষ উইকেট দুটি নেন অজি পেসার প্যাট কামিন্স। স্টার্ক ও লায়ন নিয়েছেন তিনটি করে উইকেট। বাকি চার উইকেটের ২টি করে ভাগাভাগি করে নেন কামিন্স ও হ্যাজলউড।

"