ফুরফুরে মেজাজে বাংলাদেশ অনুশীলনে ক্যারিবীয়রা

প্রকাশ : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক
ama ami

টেস্টে ব্যবধানটা ২-০ করার পর টাইগাররা ওয়ানডেতে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম গত পরশু (শুক্রবার) রাতেই সিরিজ বিজয়ের পর জানিয়ে দিয়েছিলেন কাল (শনিবার) জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা পুরোপুরি ছুটির আমেজে থাকবেন। থাকবে না কোনো ক্রিকেটীয় কার্যক্রম। প্র্যাকটিস, সুইমিং বা জিম কিছুই হবে না। এমনকি মিডিয়া সেশনও থাকবে না।

কাল একদম ছুটির আমেজে, ফুরফুরে মেজাজে দিন কাটিয়েছেন ক্রিকেটাররা। ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি ফিরে গিয়েছেন রাজধানী ঢাকায়। টি-টোয়েন্টি দলের প্রায় সবার সারা বেলা কেটেছে হোটেলেই। মিডিয়ার সামনেও আসেননি কোনো ক্রিকেটার।

তবে সকালে হোটেল থেকে বাইরে ঘুরতে যাওয়ার আগে হোটেল লবিতে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে কথা বলেন কোচ স্টিভ রোডস। পরে দুপুরের খাবারটা কয়েকজন দল বেধে সিলেটের বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে খেয়েছেন। যথারীতি তামিম একটি গ্রুপের লিডার ছিলেন। ক্রিকেটারদের লাঞ্চ-ডিনারের সব সময়ই তামিম অগ্রণী ভূমিকায় থাকেন। বেশিরভাগ সময়েই জুনিয়রদের নিয়ে ভালো ও অভিজাত রেস্তোরাঁয় চলে যান খাবার খেতে। আজও তামিমের নেতৃত্বে এক গ্রুপ বেরিয়ে গিয়েছেন।

আর দলের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য মেহেদী হাসান মিরাজ ও মোহাম্মদ সাঈফউদ্দীনকে দেখা গেল সিলেটের প্রসিদ্ধ রেস্টুরেন্ট পানসীতে। এভাবেই কেটেছে স্বাগতিক ক্রিকেটারদের ছুটির দিনটি।

তবে প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য দিনটি ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন। অথচ আগে দেখা যেত বিপরীত চিত্র। বেশিরভাগ সময়ই টেস্ট বা ওয়ানডে সিরিজ হেরে টি-টোয়েন্টির আগে তেড়ে-ফুঁড়ে অনুশীলন করত টাইগাররা। আর এখন বদলে গেছে সময়, পাল্টে গিয়েছে দিন। টাইগারদের বদলে ভিনদেশি দলগুলো বাংলাদেশে খেলতে এসে সিরিজ হারছে এবং এক সিরিজ শেষ হতেই অন্য সিরিজের আগে কঠোর অনুশীলনে নেমে যায় নিজেদের হারানো ফর্ম খুঁজে পেতে।

যথারীতি আজ দুপুরের পর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলনে হাজির ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের একাংশ। টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে হারের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া ক্যারিবীয়রা। সে লক্ষ্যে কঠোর অনুশীলনে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছে ব্রাথওয়েট-লুইসরা। সিলেটে ১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে সিরিজের প্রথম টি- টোয়েন্টি।

 

"