জয়ের সম্ভাবনা দেখছে ভারত

প্রকাশ : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

চতুর্থ দিনের শুরুতে দুর্দান্ত বোলিংয়ে অস্ট্রেলিয়াকে খানিকটা আশার আলো দেখিয়েছিলেন নাথান লায়ন। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সেই আলো মিলিয়ে গেছে অনেকটাই। অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথমবার সিরিজের প্রথম টেস্ট জয়ের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে ভারতের। এর আগে ১১ বার অস্ট্রেলিয়া সফরে

আসলেও কোনোবারই প্রথম টেস্ট জিততে পারেনি ভারত। হেরেছিল ৯ বারই।

জয়ের জন্য অ্যাডিলেড টেস্টের শেষ দিনে ভারতের প্রয়োজন আর ছয় উইকেট। শেষ ইনিংসে ৩২৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে তাল চতুর্থ দিন শেষে অজিদের সংগ্রহ রান চার উইকেটে ১০৪। জয়ের জন্য দরকার ২১৯ রান। অপরাজিত থেকে দিন শুরু করা চেতেশ্বর পুজারা ও অজিঙ্কা রাহানের দারুণ ব্যাটিংয়ে ভারত জাগিয়েছিল বড় পুঁজির সম্ভাবনা। কিন্তু লায়নের ছয় উইকেট ও মিচেল স্টার্কের অনবদ্য বোলিংয়ে শেষ দিকে খুব বেশি রান যোগ করতে পারেনি সফরকারীরা। ভারত তৃতীয় দিন করেছিল তিন উইকেটে ১৭১ রান। পুজারা-রাহানের ৮৭ রানের জুটি ভেঙেছেন লায়ন। পুজারা থেমেছে ৭১ রানে।

সাতে নেমে স্বভাবসুলভ আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে রান বাড়ান রিশাভ প্যান্ট। ১৬ বলে ২৮ রান করা কিপার-ব্যাটসম্যানকেও থামান লায়ন। এর আগে রোহিত শর্মাকেও টিকতে দেননি তিনি। ভারত শেষ পাঁচ উইকেট হারায় মাত্র ২৫ রান তুলতে গিয়ে।

৩২৩ রানের লক্ষ্য ভীষণ দুরূহ হলেও অসম্ভব ছিল না। কিন্তু গ্রিন ব্যাগিদের বাজে ব্যাটিংয়ে সেই লক্ষ্যই এখন প্রায় ধরাছোঁয়ার বাইরে। প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়া অ্যারন ফিঞ্চ এবারও আউট হয়েছেন ১১ রানে। ফিঞ্চের পর অশ্বিন ফেরান উসমান খাজাকে। মাঝে আরেক ওপেনার মার্কাস হ্যারিসকে ফেরান মোহাম্মদ শামি। দারুণ বোলিং করা এই পেসার পরে বিদায় করে দেন পিটার হ্যান্ডসকমকেও। লড়াই করে এক প্রান্ত আগলে রেখেছেন শন মার্শ। দিন শেষে তার সঙ্গী ট্রাভিস হেড। হার এড়াতে হলে শেষ দিনে কঠিন চ্যালেঞ্চের সামনে লড়ে যেতে হবে তাদের।

"