অনুষ্ঠানে যাননি তাঁরা

প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

এই ‘রীতি’ বেশ কয়েক বছর ধরেই চলে আসছে। ফিফা বর্ষসেরা বা ব্যালন ডি’অর এ দুটি পুরস্কারের যেটা মেসি জিতেন, সেখানে রোনালদোকে দেখা যায় না, আবার যেখানে রোনালদো পুরস্কার পান, সেই অনুষ্ঠানে মেসি অনুপস্থিত। এবার মেসি-রোনালদোর ১০ বছরের আধিপত্য শেষ করে ফিফা বর্ষসেরার পর ব্যালন ডি’অর জিতেছেন লুকা মডরিচ। পরশু প্যারিসে এই অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি মেসি-রোনালদোর কাউকেই। তাদের মতো সেখানে যাননি পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারও।

বেশ কয়েক বছর ধরেই মেসি-রোনালদোর পরে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় মানা হয় নেইমারকে। এই তিন তারকা যখন বিশ্বের সেরা ফুটবলারকে পুরস্কার দেওয়ার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকেন না, অবশ্যই সেই অনুষ্ঠান একটু হলেও রং হারায়। কিন্তু তা নিয়ে রোনালদোদের ভাবতে বয়েই গেছে! পরশু রাতে ব্যালন ডি’অর অনুষ্ঠানে এমবাপ্পে, গ্রিজম্যান, ভারানে, বুফন, হ্যাজার্ডদের মতো তারকারা থাকলেও তিন তারকার কেউ ছিলেন না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রসিকতা চলেছে, লুকা মডরিচের হাতে ব্যালন ডি’অর ট্রফি দেখার কোনো ইচ্ছা ছিল না বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এই তিন ফুটবলারের।

লিওনেল মেসি নিজের দুই সন্তানের সঙ্গে আনন্দ করে কাটিয়েছেন দিনটা, ইনস্টাগ্রামে এক পোস্ট করে জানিয়েও দিয়েছেন তা। সেই ছবিতে দেখা যায় হাস্যোজ্জ্বল দুই শিশুসন্তান থিয়াগো ও মাতেওর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন মেসি। তবে অনুষ্ঠানটির সময়ে রোনালদো কী করছিলেন, সে সম্পর্কে এখনো জানা যায়নি। যদিও রোনালদোর বোন ইনস্টাগ্রামে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন পুরোদমে। ব্যালন ডি’অর হাতে হাস্যোজ্জ্বল রোনালদোÑ গত বছরের এই ছবি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করে ক্যাপশনে রোনালদোর বোন আলমা আভেইরা লিখেছেন, ‘পচা, নষ্ট, ঘুণে ধরা এক পৃথিবীতে বাস করছি আমরা, যেখানে মাফিয়া আর টাকার জোরে সবকিছু পাওয়া যায়!’ মদরিচ টাকা আর মাফিয়ার জোরে ব্যালন ডি’অর, আকারে-ইঙ্গিতে কী এটাই বোঝাতে চাইলেন আভেইরা?

এদিকে, ব্যালন ডি’অরের অনুষ্ঠানে যাওয়ার চাইতে ‘কল অব ডিউটি’ খেলাকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে করেছেন নেইমার। টুইটারে দেখা গেছে, খুব মনোযোগের সঙ্গে কম্পিউটারে এই গেম খেলছেন তিনি। অনুষ্ঠানটা হয়েছে প্যারিসে, নেইমার খেলেনও প্যারিসের সবচেয়ে বড় ক্লাবে, থাকেনও প্যারিসে। ফলে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নেইমারের কোনো সমস্যা হওয়ার কথা ছিল না। কিন্তু তিনি গেলেন না।

 

"