শেষ বত্রিশে আর্সেনাল-চেলসি

প্রকাশ : ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

‘অনেক বড় চোট।’ প্রিয় শিষ্য ড্যানি ওয়েলবেককে হারিয়ে ম্যাচ শেষে এই কথাটাই উগরে দিলেন আর্সেনাল কোচ উনাই এমেরি। পরশু গোলশূন্যভাবে শেষ হওয়া ম্যাচটিতে গানারদের সবচেয়ে বড় ধাক্কা হচ্ছে ওয়েলবেকের চোট। ২৫ মিনিটে লিসবনের ডি-বক্সের ভেতর গোড়ালির চোটে পড়েন ইংলিশ ফরওয়ার্ড। পরে ম্যাচের ৩০ মিনিটে ওয়েলবেককে মাঠ ছাড়তে হয়েছে স্ট্রেচারে শুয়ে। তার বদলে মাঠে নামেন পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াং। কিন্তু ঘরের মাঠ এমিরেটস স্টেডিয়ামে পর্তুগিজ ক্লাব লিসবনের বিপক্ষে গোলের দেখা পায়নি গানাররা। ইউরোপা লিগের ম্যাচটি শেষ হয়েছে গোলশূন্য ব্যবধানে। ড্র করলেও শেষ ৩২ দলে জায়গা করে নিয়েছে আর্সেনাল। চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত ১৫ ম্যাচ ধরে অপরাজিত আছে এমেরির শিষ্যরা।

রাশিয়া বিশ্বকাপ মিস করলেও যুক্তরাষ্ট্র ও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের জন্য কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের দলে ডাক পেয়েছিলেন ওয়েলবেক। চোটটা ভয়ানক হলে ম্যাচ দুটিতে দলের বাইরে থাকতে হতে পারে ২৭ বছর বয়সী ফরওয়ার্ডকে। ওয়েলবেক এর আগে থ্রি লায়ন্সদের জার্সিতে খেলেছেন ৪২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

তবে প্রিয় শিষ্যের চোট স্বস্তি কেড়ে নিয়েছে এমেরির মুখ থেকে। সংবাদ সম্মেলনে এক প্রকার থমথমে মুখ নিয়েই স্প্যানিশ কোচ বলেন, ‘তাকে (ওয়েলবেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। খবর হচ্ছে এখন আমাদের অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে আমরা মনে করছি চোটটা গুরুতর। সব চোটই ভিন্ন ভিন্ন। সম্ভবত চোটে কিছু একটা হয়েছে তার। এই মুহূর্তে তার সঙ্গে আছি। সে অত্যন্ত সজ্জন ব্যক্তি। তার অঙ্গীকার আমাদের জন্য বিশাল কিছু।’

পরশুর ম্যাচে স্কোয়াডে ছিলেন না মেসুত ওজিল। তবে ওয়েলবেকের চোট ছুঁয়ে গেছে সাবেক জার্মান মিডফিল্ডারকেও। সতীর্থকে শুভকামনা জানিয়ে ওজিল টুইট করেন, ‘দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠো ড্যানি।’

ইউরোপা লিগের শেষ ৩২ নিশ্চিত করেছে আরেক ইংলিশ ক্লাব চেলসি। অ্যাওয়ে ম্যাচে ৫২ মিনিটে করা অলিভিয়ের জিরার্ডের একমাত্র গোলে চেলসি জয় পেয়েছে বেলারুশের ক্লাব বাতে বরিসভের বিপক্ষে। ফরাসি ফরওয়ার্ড ব্লুজদের জার্সিতে গোল পেয়েছে ৭৯৪ মিনিট পর।

তবে গোলটি যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা বুঝা গেছে চেলসি কোচ মাউরিসিও সারির কণ্ঠে। শিষ্যের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘সে (জিরার্ড) আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। আমি তার ওপর অত্যন্ত প্রীত। আমি জানি স্ট্রাইকার গোল করতে চায়। গোল করার ওপর জোর দিয়ে আমি তাকে চিন্তিত করতে চাই না।’

তবে বড় বাঁচা বেঁচেছে ইতালিয়ান ক্লাব এসি মিলান। অ্যাওয়ে ম্যাচে রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়ার পরও রোজোনেরিরা। বেটিসকে ১২ মিনিটে এগিয়ে দেন জিওভান্নি লো সেলসো। ৬২ মিনিটে মিলানকে সমতায় ফেরান স্প্যানিশ ফরওয়ার্ড সুসো।

 

"