এবার মাঠে যুবকের দৌড়

‘আমাদের আরো সতর্ক থাকতে হবে’

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক
ama ami

‘নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেঙে হুট করেই মাঠে ঢুকে পরা! নিরাপত্তা বাহিনীর টেনেহিচড়ে বাইরে নিয়ে যাওয়া।’ বিদেশি ফুটবল লিগে বা আন্তর্জাতিক ম্যাচে হরহামেশাই দেখা যায় এমনটা। কিন্তু বাংলাদেশের কিংবা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে এমন ঘটনা বিরল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টেস্টেই দুইবার এমন ঘটনা ঘটল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। প্রথম দিন এক কিশোর মাঠে ঢুকে পড়েছিল, দৌড়ে গিয়ে সান্নিধ্য পেয়েছিলেন মুশফিকুর রহিমের। কালও তার দিকে আসলেন আরেক পাগলাটে ভক্ত। আগের দিন ভয় পাওয়া মুশফিক এদিনও যথারীতি অপ্রস্তুত হয়ে গেছেন। দুটো ঘটনারই সূত্রপাত মাত্রাতিরিক্ত আগে কিন্তু আবেগ ছাপিয়ে নিরাপত্তার বিষয়টি সবার আগে।

খেলোয়াড়দের নিরাপত্তার বিষয়টিকে বরাবরই অগ্রাধিকার দিয়ে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যদিও বিসিবি প্রধান নিরাপত্তা ম্যানেজার হোসাইন ইমাম বিষয়টিকে ক্রিকেটারের প্রতি ভক্তের অনুরাগের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে দেখছেন। তবে নিরাপত্তার বিষয়ে আরো সতর্ক হওয়ার অঙ্গীকার করেছেন, ‘আমাদের আরো সতর্ক থাকতে হবে। আমরা নিñিদ্র নিরাপত্তার নিশ্চিত করার জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনে ৪৩ ওভারের সময় পিটার মুরের আউট হওয়ার পর এক যুবক নিরাপত্তাকর্মীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে মাঠে ঢুকে পরেন। মাঠে ঢুকেই মুশফিককে জড়িয়ে ধরেন। তারপর তাকে নিরাপত্তাকর্মীরা ধরে নিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। একই ঘটনা ঘটেছিল ম্যাচের প্রথমদিনেও। শাহিদুল ইসলাম নামের এক কিশোর মাঠে ঢুকেই জড়িয়ে ধরেছিলেন মুশফিককে। ওই ঘটনার পর ম্যাচ রেফারি নিরাপত্তার ব্যাপারে আরো সতর্ক হওয়ার কথা জানিয়েছেন। তবু কাজ হলো না। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল। এর আগেও এমন ঘটনার ঘটেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেটে। সেটা মাশরাফি বিন মর্তুজার সঙ্গে। গত বছরের শেষ দিকে মিরপুর শেরেবাংলা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালীন মাঠে ঢুকে মাশরাফিকে জড়িয়ে ধরেন এক সমর্থক।

 

"