ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙল ইতালি

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

একসময় বিশ্ব ফুটবল শাসন করেছে ইতালি। তা ক্লাব ফুটবল হোক বা জাতীয় দলের জার্সি গায়ে। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানিদের বিপক্ষে টেক্কা দিয়ে লড়েছে আজ্জুরিরা। ব্রাজিলের পর বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চারবার শিরোপা সঙ্গে ইউরোপ চ্যাম্পিয়নশিপ, কী নেই নিজেদের শো-কেসে। কিন্তু ২০০৬ সালে শেষবার বিশ্বকাপটা উঁচিয়ে সই, এরপর রোমান গ্ল্যাডিয়েটরদের ইতিহাসটা কেবল হতাশার। বাজে পারফরম্যান্সের কারণে ৬০ বছর পর দ্য ব্লুজদের দর্শক হয়ে থাকতে হয়েছে রাশিয়া বিশ্বকাপে।

বাছাইপর্বে ব্যর্থতার পর দল সংগঠিত করতে ইতালিয়ানদের দায়িত্ব নিয়েছিলেন স্বদেশি অভিজ্ঞ কোচ রবার্তো মানচিনি। কিন্তু তাতেও দুর্দশা কাটেনি ইতালির। অবশেষে ইতালির ডাগআউটে সাড়ে চারমাস কাটানোর পর প্রথম জয় পেলেন মানচিনি। ইউরোপের বাছাইপর্বে সুইডেনের বিপক্ষে প্রথম লেগে হারের হার মূলত বিশ্বকাপের টিকিট পেতে ব্যর্থ হয় ইতালি। এরপর ৯টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে মানচিনির দল। কিন্তু সৌদি আরব ছাড়া জয় পায়নি কারো বিপক্ষে। অবশেষে ধারাবাহিক পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙল ইতালি। পরশু উয়েফা নেশনস লিগে যোগ করা সময়ে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ১-০ গোলের নাটকীয় জয় পেয়েছে আজ্জুরিরা।

এই সপ্তাহে এক প্রীতি ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার পর ইউক্রেনের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে ইতালিকে। ধারাবাহিক ব্যর্থতায় প্রায় ফিকে হতে বসেছিল ইতালির জয়ের স্বপ্ন। কিন্তু পরশু ম্যাচের শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকা আজ্জুরিদের তা আর হতে দিলেন না ক্রিশ্চিয়ানো বিরাগচি। ম্যাচ শেষের জন্য যখন রেফারি প্রস্তুতি নিচ্ছে তখনই বাঁ-পায়ের বুলেট গতির শটে স্বাগতিক পোল্যান্ডকে নিশ্চুপ করে দেন এই তরুণ ডিফেন্ডার। পোলিশদের বিপক্ষেই অভিষেক হয়েছিল বিরাগচির। নেশনস লিগে তার গোলেই পোল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে করেছিল ইতালি।

তবে ৭১ মিনিটে পোলিশ তারকা রবার্ট লেভানডভস্কি সহজ সুযোগ নষ্ট না করলে ফলাফলটা অন্যরকম হতে পারত। কিন্তু ইতালি অবশেষ জয় দেখলেও হারের বৃত্তে বন্দি হতে বসেছে পোলিশরা। রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর নেশনস কাপেও জয়শূন্য পোল্যান্ড। বায়ার্ন মিউনিখের জার্সিতে গোল পেলেও পোলিশদের জার্সিতে গোল করতে ভুলে গেছেন লেভা। এই নাটকীয় জয়ে অবশেষে হাসি ফুটেছে কোচ মানচিনির মুখেও। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি বলেন, ‘পুরো ম্যাচে আমাদের দাপট ছিল। ছেলেরা তাদের সর্বোচ্চটা দিয়েছে। আমরা জানি, উন্নতির জন্য কিছুদিন সময় লাগবে। তবে আমরা অবশ্যই তার জন্য ধৈর্য ধরব।’

নেশনস লিগে ‘সি’ গ্রুপে তিন ম্যাচে একটিতেও জয় পায়নি পোলিশরা। এক ড্রয়ে এক পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে তারা। অন্যদিকে ইতালি তিন ম্যাচে এক ড্র ও এক জয় নিয়ে গ্রুপের দ্বিতীয় স্থানে আছে। আর দুই ম্যাচে ছয় পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে পর্তুগাল।

 

ফলাফল

 

পোল্যান্ড ০-১ ইতালি

রাশিয়া ২-০ তুরস্ক

রোমানিয়া ০-০ সার্বিয়া

ইসরায়েল ২-০ আলবেনিয়া

লিথুয়ানিয়া ১-৪ মন্টেনিগ্রো

 

"