রিয়াল মাদ্রিদে যেতে চান হ্যাজার্ড

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

রাশিয়া বিশ্বকাপের পরপরই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পর্তুগিজ উইঙ্গারের পরিবর্তে ইডেন হ্যাজার্ডকে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আনতে চেয়েছিলেন রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। কিন্তু বেলজিয়াম ফরওয়ার্ডকে ছাড়েনি চেলসি। তবে অদূর ভবিষ্যতে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন হ্যাজার্ড। রিয়াল মাদ্রিদ যে তার স্বপ্নের ক্লাব, তাও জানিয়েছেন।

পরে অবশ্য জানান, স্টামফোর্ড ব্রিজেই ভালো আছেন তিনি।

চেলসির সঙ্গে আরো দুই বছরের চুক্তি আছে হ্যাজার্ডের। তবে দ্য ব্লুজরা হয়তো তাকে ২০২০ সালের আগে ছাড়বে না। হ্যাজার্ডের সঙ্গে নতুন চুক্তিও করতে চায় চেলসি। চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন হ্যাজার্ড। বিশ্বকাপের ফর্মটা টেনে এনেছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও। গত ম্যাচে সাউদাম্পটনের বিপক্ষেও করেছেন একটি গোল। তার দারুণ পারফরম্যান্সের সুবাদে ৮ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে চেলসি। আর সাত গোল করে মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের সিংহাসনে বসেছেন হ্যাজার্ড।

নিজের ভবিষ্যতের কথা জানাতে গিয়ে হ্যাজার্ড গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে আমি বেশ ছন্দে আছি। এই মুহূর্তে আমি ভালো ফুটবল খেলছি। রিয়াল মাদ্রিদ বিশ্বের সেরা ক্লাব। আমি মিথ্যা বলতে চাই না। শৈশব থেকে আমি রিয়ালের জার্সিতে খেলার স্বপ্ন দেখতাম। সামনে কী ঘটে আমরা দেখব। এই নিয়ে আমি প্রতিদিন কথা বলতে চাই না। আমার সময় নেই। তবে শিগগিরই আমরা আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলব। আপনারও যদি কোনো স্বপ্ন থাকে, আপনি তা পূরণ করতে চাইবেন।’

গত জুলাইয়ে হ্যাজার্ডের চেলসি ছাড়ার গুঞ্জন বেশ চাউর হয়েছিল। এমনকি রিয়াল তার জন্য ২০০ মিলিয়ন ইউরো দেওয়ারও প্রস্তাব দিয়েছিল চেলসিকে। কিন্তু ডাগআউটে আন্তোনিও কন্তের পরিবর্তে মাউরিসিও সারি আসার পর আলোচনাটা বেশি দূর আগায়নি। হ্যাজার্ডও গত জুলাইয়ে বলেছিল ক্লাব ছাড়ার কথা, ‘আমি বলেছিলাম সময়টা এখন পরিবর্তনের। কারণ আমি বিশ্বকাপে চমৎকার খেলেছি।’

হ্যাজার্ডকে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে নিয়ে আসতে না পারলেও বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে দলে ভিড়িয়েছে রিয়াল। তবে এবার সবুজ বাতি পেলে রিয়াল হয়তো আবার হাত বাড়াতে পারে হ্যাজার্ডের দিকে। এমনিতে রোনালদোর শূন্যতা বেশ ভোগাচ্ছে স্প্যানিশ জায়ান্টদের। এবার হয়তো হ্যাজার্ডকে নিয়ে এসে তার ক্ষতিপূরণ করতে পারেন পেরেজ।

ছয় বছর ধরে স্টামফোর্ডে আছেন হ্যাজার্ড। ২০১২ সালে লিলে থেকে চেলসিতে

এসেছিলেন তিনি। এরপর থেকে হয়ে উঠেছেন চেলসির মূল অস্ত্র। ব্লুজদের জার্সি গায়ে ২১৬ ম্যাচে করেছেন ৭৬ গোল।

"