হাসি ফুটেছে মরিনহোর মুখে

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

জয়টা দরকার ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাটেড কোচ হোসে মরিনহোর। নয়তো রেড ডেভিল সমর্থক ও ক্লাব কিংবদন্তিরা আরেকবার ধুয়ে দিতেন স্পেশাল ওয়ানকে। টানা চার ম্যাচ জয় বঞ্চিত থাকায় এমনিতে চাকরি হারানোর শঙ্কায় ছিলেন পর্তুগিজ কোচ। তার মধ্যে ঘরের মাঠে পরশু আরেকবার হারের লজ্জায় ডুবতে বসেছিলেন তিনি। তবে এবার ভাগ্য মুখ তুলে তাকিয়েছিল ইউনাইটেডের দিকে। ওল্ড ট্রাফোর্ডে নিউক্যাসলের

বিপক্ষে ১০ মিনিটে দুইবার পিছিয়ে পড়েও দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে ৩-২ গোলের জয় পেয়েছে মরিনহোর শিষ্যরা।

ব্যর্থতা যেন নিত্যসঙ্গী হতে বসেছিল মরিনহোর। অতিরিক্ত নেতিবাচক খেলার কারণে সমর্থকরা ক্ষেপে উঠেছিল। দলের মিডফিল্ডারও পল পগবাও গলা মিলিয়েছিলেন তাদের সঙ্গে। এয়াড়ার মরিনহোর সমালোচনায় মুখর হয়েছিলেন দুই ইউনাইটেড কিংবদন্তি পল স্কোলস ও রিও ফার্দিনান্দ। পরশুর জয়ে অবশ্য শোধ নিতে বেশিক্ষণ দেরি করেননি মরিনহো, ‘আমাকে উদ্দেশ্য করে অনেক কিছুই ঘটেছে। অনেক কথা হয়েছে। ভাবতে শুরু করেছিলাম, লন্ডনে কাল বৃষ্টি হলে সেটি আমার দোষ, আবার লোকজন ব্রেক্সিট পছন্দ না করলেও সেটি আমার দোষ। ২০২০ সাল পর্যন্ত চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোয় আমাকে দোষ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমি ক্লাবের প্রতি পিস্তল তাক করে চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি। তারাই বাড়িয়েছে।’

পরশু আরেকটি হার চোখ রাঙাচ্ছির ইউনাইটেডকে। ম্যাচ শুরুর ৭ মিনিটে ওল্ড ট্রাফোর্ডকে স্তব্ধ করে দেন নিউক্যাসলের কেনেডি। ৩ মিনিট পর ব্যবধানটা দ্বিগুণ করেন ইয়োশিনোরি মুতো। কিন্তু দুর্দান্ত খেলার পরও গোল পাচ্ছিল না ম্যানইউ। অবশেষে দ্বিতীয়ার্ধের ৭০ মিনিটে হুয়ান মাতার গোলে কিছুটা স্বস্তিতে ফিরে স্বাগতিকরা। ৭৬ মিনিটে ম্যানইউকে সমতায় ফেরান অ্যান্থনি মার্শাল। ড্র হতে যাওয়া ম্যাচটিকে শেষ মুহূর্তে রাঙিয়ে দেন আলেক্সিস সানচেজ। চিলিয়ান ফরওয়ার্ডে গোলে নাটকীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মরিনহোর শিষ্যরা।

দিনের অন্য ম্যাচে জয় পেয়েছে টটেনহাম। ঘরের মাঠ ওয়েম্বলিতে ৮ মিনিটে করা এরিক ডায়ারের একমাত্র গোলে স্পার্সরা জয় পেয়েছে কার্ডিফ সিটির বিপক্ষে। কাল সবচেয়ে বড় জয় পেয়েছে আর্সেনাল। আলেক্সান্দ্রে লাকাজেত্তে ও পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াংয়ের জোড়া গোলে ফুলহামের বিপক্ষে ৫-১ গোলের জয় পেয়েছে গানাররা। গানারদের অন্য গোলটি করেছেন অ্যারন রামসে।

আট ম্যাচে চার জয় ও এক ড্রয়ে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে প্রিমিয়ার লিগের অষ্টম স্থানে আছে ম্যানইউ। অবনমনের শঙ্কায় থাকা নিউক্যাসলের পয়েন্ট দুই। সমান ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে ওঠে এসেছে টটেনহাম। এক ম্যাচ কম খেলে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে আর্সেনাল। সমান ১৯ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে আছে ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল।

 

ফলাফল

 

ইউনাইটেড ৩-২ নিউক্যাসল

টটেনহাম ১-০ কার্ডিফ সিটি

লেস্টার সিটি ১-২ এভারটন

সাউদ্যাম্পটন ০-৩ চেলসি

ফুলহাম ১-৫ আর্সেনাল

"