প্রতিশোধ নয়, তামিম ভাবছেন জয় নিয়ে

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

স্টিভ রোডস আসার আগে বাংলাদেশের প্রধান কোচ হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। কিন্তু হুট করে তার পদত্যাগটা মেনে নিতে পারেনি টাইগাররা। অন্তর্বর্তীকালীন কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের অধীনে নিদাহাস ট্রফির জন্য শ্রীলঙ্কা সফর করে বাংলাদেশ। তারপরের ঘটনাটি সবার জানাই আছে। শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশের অহি-নকুল সম্পর্কের ভেতর দিয়ে নিদাহাস ট্রফিতে রানার্স আপ হয়ে ফিরে টাইগারা। তাই হাথুরুসিংহে-এই নামটা এখন বেশ অস্বস্তিতে ভোগায় বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের। কোচ হিসেবে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে যেমন সাফল্য এনে দিয়েছেন, তেমনি বিতর্কও ছড়িয়েছেন। ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের মধ্যে পদত্যাগ করে বেশ ক্ষোভের জন্ম দিয়েছিলেন এই লঙ্কান কোচ। জাতীয় দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের সঙ্গেও হাথুরুসিংহের বিরোধ ছিল। আর তাই দেশের অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর কাছেই বাংলাদেশ দলের হাথুরুসিংহের মুখোমুখি হওয়া মানেই এক ধরনের প্রতিশোধের উপলক্ষ। ভাবনাটা যে একেবারেই ভুল, সে কথাই জানালেন তামিম ইকবাল।

ভিসা জটিলতা থাকলেও এশিয়া কাপ খেলতে তামিম ইকবাল এখন আরব আমিরাতে। টুর্নামেন্টের ৬ দলের একটি শ্রীলঙ্কা। হাথুরুসিংহে তামিমদের ছেড়ে লঙ্কানবাহিনীর দায়িত্ব নিয়েছেন। দেশের কোচের ভূমিকায় তিনি যতবারই বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়েছেন, ততবারই প্রতিশোধের প্রসঙ্গটা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। নিদাহাস ট্রফি তার সর্বশেষ উদাহরণ। এশিয়া কাপেও একই প্রসঙ্গ মাথাচাড়া দিয়ে ওঠায় তা মাটিচাপা দিয়ে দিলেন তামিম ইকবাল। বাংলাদেশ দলের এই ওপেনার জানিয়ে দিলেন, হাথুরুসিংহের (শ্রীলঙ্কা) বিপক্ষে প্রতিশোধ নয়, জয়ের জন্য খেলবে বাংলাদেশ।

দুবাইয়ে সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, ‘আমরা হাথুরুসিংহের সঙ্গে অসাধারণ কিছু মুহূর্ত কাটিয়েছি। ৪-৫ বছর কেউ কোচ হিসেবে থাকলে সম্পর্কের উত্থান-পতন থাকবেই। কিন্তু কোচ হিসেবে তিনি আমাদের জন্য অসাধারণ কাজ করেছেন। কেউ তার কাছ থেকে এই কৃতিত্ব ছিনিয়ে নিতে পারবে না।’

১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয়ে এশিয়া কাপ অভিযান শুরু করবে বাংলাদেশ। অর্থাৎ এশিয়া কাপের শুরুতেই সাবেক কোচের মুখোমুখি হতে হবে তামিম-সাকিবদের। তামিম সাফ জানিয়ে দিলেন, প্রতিশোধ নেওয়ার কোনো ভাবনাই তাদের নেই। তিনি আরো বলেন, ‘অবশ্যই আমরা আমাদের সাবেক কোচকে হারাতে চাই। তবে খুব ভালো মানসিকতা নিয়ে, প্রতিশোধের জন্য নয়।’

তামিমের যুক্তি দিয়ে জানান, শুধু হারানোর ভাবনা নিয়ে মাঠে নামলে চলবে না। তাতে কাজ হবে না। খেলতে হবে ভালো ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেট। শ্রীলঙ্কা যেহেতু ভালো দল আর হাথুরুসিংহের মতো কোচ থাকায় ভালো ক্রিকেট খেলার বিকল্প নেই বলেই মনে করেন তামিম। আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে জানিয়ে দিলেন, ‘শুধু হাথুরুসিংহেকে হারানোর কথা ভাবলে কাজ হবে না। খুব ভালো ক্রিকেট খেলার ব্যাপারে অবশ্যই মনোসংযোগ করতে হবে।’

"