কন্ডিশন নিয়ে ভাবছেন না মাহমুদউল্লাহ

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

এশিয়া কাপে অংশগ্রহণের জন্য গত রোববার সংযুক্ত আরব আমিরাতে পা রেখেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ১৫ তারিখ উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এশিয়া কাপ আসরের মিশন শুরু করবে টাইগাররা। অভিযানের শুরুতে শ্রীলঙ্কাকে পাওয়ায় অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ স্মৃতিতে ফিরে আসছে নিদাহাস ট্রফি। বাংলাদেশের সাবেক বর্তমানে লঙ্কানবাহিনীর কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিপক্ষে আরো একটি লড়াইয়ের আগে মাহমুদউল্লাহ মনে করিয়ে দিলেন নিদাহাস ট্রফির সেই আনন্দদায়ী স্মৃতি।

গত মার্চে কলম্বোয় অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় এই সিরিজে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে দুইবার হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। লঙ্কানদের বিপক্ষে দুইটি ম্যাচই ছিল রোমাঞ্চ আর উত্তেজনায় ভরা। রোমাঞ্চকর একটি ম্যাচের নায়ক আবার মাহমুদউল্লাহ।

ফাইনালে উঠতে হলে জয় ছাড়া বিকল্প ছিল না দুই দলের সামনে। ১৬ মার্চের লড়াইটা তাই রূপ নিয়েছিল অলিখিত ফাইনালে। শ্রীলঙ্কার ছুড়ে দেওয়া ১৬০ রানের লক্ষ্য খেলতে নেমে অনেক ঘটনা ঘটেছিল সেদিন প্রেমাদাসায়। পেন্ডুলামের মতো দুলতে থাকা ম্যাচ থমকে দাঁড়ায় আম্পায়ারের বিতর্কিত এক সিদ্ধান্তে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান রেগেমেগে অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ ও রুবেল হোসেনকে চলে আসতে বলেছিলেন মাঠ ছেড়ে। উত্তেজনা পেরিয়ে শেষ পর্যন্ত রিয়াদ-রুবেল ফিরে গিয়েছিলেন। ২ বলে দরকার ছিল ৬ রান। শ্বাসরুদ্ধকর মুহূর্তে ছক্কা মেরে মাহমুদউল্লাহ মিলিয়েছিলেন কঠিন সমীকরণ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আরো একটি লড়াইয়ের আগে মাহমুদউল্লাহ মনে করিয়ে দিলেন সেই আনন্দদায়ী স্মৃতি, ‘কয়েক মাস আগে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আমাদের দারুণ কিছু স্মৃতি ছিল। তবে শ্রীলঙ্কা শক্তিশালী দল এবং তারা খুব ভালো ক্রিকেট খেলছে। তাদের হারাতে হলে আমাদের সেরাটা খেলতে হবে। আমরা দেশে খুব ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। আশা করি ভালো কিছুই হবে।’

কাল দুবাইয়ে মাহমুদউল্লাহ বললেন ব্যক্তিগত লক্ষ্যের কথাও, ‘ব্যক্তিগতভাবে এশিয়া কাপে কিছু করার চেষ্টা করব। দলের জন্য অবদান রাখতে পারলে ভালো লাগে, সেই ভালো লাগা আরো বেড়ে যায় যদি দল জেতে। ব্যাপারটা সহজভাবে দেখতে চাই এবং যতটা সম্ভব ভালো করতে চাই।’

কন্ডিশনের কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশ এরই মধ্যে আমিরাতে তিন দিন অনুশীলন করে ফেলেছে। আবহাওয়া সম্পর্কে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘এই মুহূর্তে এখানকার আবহাওয়ায় আর্দ্রতা অনেক বেশি। তবে একজন পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে এর সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে খেলতে হবে। খেলতে এসে আবহাওয়া নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না।’

এছাড়া বাংলাদেশ দুবাই-আবুধাবিতে থাকা অনেক প্রবাসীদের সমর্থন পাবেন বলে জানান মাহমুদউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘আশা করি তারা মাঠে আসবে, আমাদের সমর্থন করবে এবং তাদের জন্য ভালো কিছু উপহার দেব আশা করি।’ গত মাসে ফ্লোরিডায় প্রবাসীদের সমর্থনে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলেছিল বাংলাদেশ।

"