আশা নিয়ে তামিমদের দুবাই যাত্রা

প্রকাশ | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপ টুর্নামেন্টে অংশ নিতে বাংলাদেশ জাতীয় দল উড়াল দিয়েছে গত রোববার রাতে। কিন্তু ভিসা জটিলতার কারণে দলের সঙ্গে মরুর দেশের বিমান ধরতে পারেননি ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও পেসার রুবেল হোসেনের। দুজনেরই ভিসা জটিলতা কেটেছে। কালই দুবাইর বিমানে চড়ার কথা টাইগার দুই ক্রিকেটারের।

ভিসা জটিলতার কারণে প্রথম ম্যাচে নিজের প্রস্তুতি নিয়েও সংশয়ে পড়ে গিয়েছিলেন তামিম। যে কারণে নিজ উদ্যোগেই কাল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছেন দেশ সেরা ব্যাটসম্যান। যেখানে নেট অনুশীলনে পুরোপুরি ফিট তামিমকে দেখা গেল।

কাল রাত ১টায় দুবাইয়ে রওনা দিয়েছেন তামিম। কাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তামিম। রুবেল ভিসা পেয়েছেন আগের দিন রাতেই। কাল সন্ধ্যায় দুবাইর উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছেন তিনি। সবকিছু ঠিক থাকলে আজ সকালে দুজনই দলের সঙ্গে টিম হোটেলে যোগ দেবেন।

১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এশিয়া কাপে প্রথম ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য দুইদিন ধরে দুবাইতে অনুশীলন করছে টাইগারদের। তবে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে তামিম খেলতে পারবেন কি না তানিয়ে অনিশ্চয়তা ছিল। প্রথমত, আঙুলের চোটে ভুগছিলেন তিনি। তার ওপর ভিসা জটিলতা। কাল সকালে অনুশীলন করতে এসে নিজেও দুশ্চিন্তার কথা শুনিয়েছিলেন তামিম। যদিও সন্ধ্যার পর কেটে গেছে শঙ্কার কালো মেঘ।

তাই প্রস্তুতিতে আর ঘাটতি থাকার কথা নয় তামিমের। দুবাইর কন্ডিশনের সঙ্গে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে ৩ দিন সময় পাচ্ছেন বাঁ-হাতি ওপেনার। আর ইনজুরির অস্বস্তিটাও প্রায় কেটে গেছে তার। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের ইনডোরে অনুশীলনে স্বচ্ছন্দ নিয়ে ব্যাটিং করেছেন তিনি। তবে এখনো কিছুটা ব্যথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন তামিম।

গত ২৫ আগস্ট সবশেষ ব্যাটিং করেছেন তামিম। ২৭ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ দলের এশিয়া কাপের দলের প্রস্তুতি। শুরুতে ছিল ফিটনেস ট্রেনিং। স্কিল ট্রেনিং শুরুর আগেই তামিম চোট পান আঙুলে। এরপর ব্যক্তিগত জরুরি প্রয়োজনে গিয়েছিলেন সিঙ্গাপুর। সেখানেই স্ক্যান করিয়ে জানতে পারেন আঙুলে হালকা চিড়। দেশে ফেরার পরও তাই শুরু করতে পারেননি ব্যাটিং।

এ নিয়ে দুবাই গিয়ে ফিজিওর সঙ্গে কথা বলার কথা ভেবেছিলেন তামিম। কিন্তু ভিসা জটিলতায় দলের সঙ্গে যেতে না পারায় হতাশার কথা বলেছিলেন তিনি, ‘আশা করছি এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারব। আমি এখন বেশি ভাবছি অনুশীলন নিয়ে। অনেক দিন হয়ে গেল ব্যাটিং করি না। জানি না কি অবস্থায় আছি। তা ছাড়া আঙুলে কতটা লাগছে, কতটা পারছি, এসব জানতে হলেও তো ব্যাট করা প্রয়োজন ছিল।’

"