নিজেকে প্রমাণ করে আসতে চান আশরাফুল

প্রকাশ : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে নতুন উদ্যমে বাংলাদেশ জাতীয় দলে ফেরার মিশন শুরু করেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। সেই জন্য দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের পাশাপাশি বিদেশি লিগেও পারফর্ম করে সমালোচকদের জবাব দিতে চান এই সাবেক টাইগার অধিনায়ক। ৩৪ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের লক্ষ্য এখন এই বছর অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া আফগানিস্তান টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লিগের (এপিএল) প্রথম আসরের দিকে।

৫ অক্টোবর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) শুরু হচ্ছে এপিএল। এই টুর্নামেন্ট থাকছে আশরাফুলের নামও। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক এই আসরে খেলে পুনরায় নিজের ফিটনেস প্রমাণ দিতে মুখিয়ে আছেন বাংলাদেশের এই ক্রিকেটার। আফগান টি-টোয়েন্টি লিগের ড্রাফটে নিজের নাম থাকার কথাও জানিয়েছেন তিনি। গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে আশরাফুল বলেন, ‘আফগান টি-টোয়েন্টি লীগের ড্রাফটে আমার নাম থাকার কথা। আমি সেখানে সুযোগ পেলে নিজের ফিটনেস প্রমাণ করতে চাইব। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আমার স্ট্রাইক রেট নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। আমি সেখানে সুযোগ পেলে নিজেকে প্রমাণ করব।’

আশরাফুল ছাড়াও এপিএলের বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি ক্রিকেটারের অংশগ্রহণের কথা রয়েছে। এদের মধ্যে শোনা যাচ্ছে বাংলাদেশি ওপেনার তামিম ইকবালের নামও। তবে বাংলাদেশের ব্যস্ত সূচির কারণে এপিএলে তামিমকে দেখা পাওয়া যাবে কি না সন্দেহ। ৫ দলের এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করতে পারেন ব্র্যান্ডন ম্যাককালাম, ক্রিস গেইল, শহীদ আফ্রিদি ও কুমার সাঙ্গাকারারও মতো ক্রিকেটাররাও।

২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ ফিক্সিং ও স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে ক্রিকেট থেকে ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছিলেন আশরাফুল। সঙ্গে জরিমানা করা হয় ১০ লাখ টাকা। ১৩ আগস্ট সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে এই ব্যাটসম্যানের। ২০১৭-১৮ মৌসুমে ঘরোয়া লিস্ট ‘এ’ লিগে ফিরে ৫টি সেঞ্চুরি করেছেন আশরাফুল।

৫ থেকে ২৩ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এপিএলে মোট ম্যাচ হবে ৫টি। অংশগ্রহণ করা ৫ প্রদেশের দলগুলো হলো কাবুল, কান্দাহার, নঙ্গরহার, পাকতিয়া ও বালখ। আসরের সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আরব আমিরাতের শারজাহ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে।

"