অস্ট্রেলিয়ান লিগে উসাইন বোল্ট

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

স্পিøন্টের রাজা বলা হয় তাকে। সর্বকালের সেরা অ্যাথলেটও। তবে বয়স ত্রিশের ঘর পার হতেই স্পিøন্টকে বিদায় জানিয়েছেন উসাইন বোল্ট। তার স্বাদের ট্র্যাকসুটটা রেখে নেমে পড়েছেন ফুটবল মাঠে। বোল্টের ফুটবল প্রীতি অনেক আগের। খেলেনও অসাধারণ। স্পিøন্টার না হলে যে তিনি ফুটবলার হতেন তাও কয়েকবার জানিয়েছেন সাক্ষাৎকারে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পাঁড়ভক্ত এই ৩১ বছর বয়সী স্পিøন্ট কিংবদন্তি এবার যোগ দেবেন অস্ট্রেলিয়ান ‘এ’ লিগের ক্লাব সেন্ট্রাল কোস্ট ম্যারিনার্সে। তবে কোনো ধরনের চুক্তিতে নয়। ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘অনির্দিষ্টকালের প্রশিক্ষণ সময়কাল’র জন্য তিনি ‘এ’ লিগে যাচ্ছেন। এর আগে জার্মান বুন্দেসলিগার ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, দক্ষিণ আফ্রিকার ক্লাব সানডাউনস এবং নরওয়ের ক্লাব স্ট্রমগডেস্টে ফুটবলের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন জ্যামাইকান কিংবদন্তি।

বোল্ট অলিম্পিকের ১০০ ও ২০০ মিটার দৌড়ে রেকর্ড আটবার স্বর্ণ জিতেছেন। সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে দৌড় শেষ করার রেকর্ডটিও তার। কিন্তু ট্র্যাক ছাড়ার পর এখনো কোনো ফুটবল ক্লাব তার সঙ্গে পেশাদারি চুক্তিতে যায়নি। তবে বোল্টের ইচ্ছা ছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলার। অস্ট্রেলিয়ার ‘এ’ লিগে যাওয়া নিয়ে বোল্ট বলেন, ‘আমি খুবই উত্তেজিত অস্ট্রেলিয়া যাওয়া নিয়ে।’

তিনি আরো বলেন, ‘পেশাদারি ফুটবল খেলা আমার অনেক দিনের স্বপ্ন। আমি জানি যে, তার জন্য আমাকে কঠোর পরিশ্রম এবং অনুশীলন করতে হবে। আমি সবসময় বলি যে, যেকোনো কিছুই সম্ভব। আমি সীমাবদ্ধতার কথা চিন্তা করি না। আমি সবসময় চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে পছন্দ করি।’

বোল্ট অ্যাথলেট থেকে বিদায় নিয়েছেন ২০১৭ সালে। এবারই প্রথম তিনি ‘এ’ লিগে অংশগ্রহণ করছেন। ক্লাবটির হয়ে নতুন মৌসুমে মাঠেও দেখা যাবে তাকে। বোল্ট উচ্ছ্বসিত হয়ে আরো বলেন, ‘আমি আশা করি, ক্লাবে আমি ভালো ভূমিকা রাখতে পারব। তার জন্য আগামী সপ্তাহেই আমি ক্লাবের অন্যান্য খেলোয়াড়, স্টাফ ও সমর্থকদের সঙ্গে একটা বৈঠকেও বসব।’

 

"