নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত রোনালদো

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

বয়স ত্রিশ পেরুলে অনেক ফুটবলার ব্রাত্য হয়ে পড়েন ইউরোপের সেরা লিগগুলোতে। আবার অনেকে অর্থের হাতছানিতে পাড়ি জমান কাতার, চীন বা যুক্তরাষ্ট্রে। গত মৌসুমেই জøাতান ইব্রাহিমোভিচ, আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও ওয়েইন রুনির মতো তারকা ফুটবলাররা যোগ দিয়েছেন জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের সকার লিগের ক্লাবে। কিন্তু ব্যতিক্রম ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ৩৩ বছর বয়সেই নতুন চ্যালেঞ্চ নিয়ে যোগ দিয়েছেন ইতালিয়ান সিরি’আ লিগের ক্লাব জুভেন্টাসে। উদ্দেশ্য নিজের মুকুটে আরেকটি ব্যালন ডি’অর পুরস্কারের পালক যুক্ত করা। তুরিনে এসেই কাল তিনি পরিচয় পর্বটা সেরে ফেলেন সমর্থকদের সঙ্গে। এই সময় তিনি নিজেকে এখনো ‘তরুণ’ বলে দাবি করেন। আর জুভেন্টাস ক্লাব কর্তৃপক্ষকে ‘সুযোগ দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞ’ বলে জানান এই পর্তুগিজ ফরওয়ার্ড।

রাশিয়া বিশ্বকাপ চলাকালীনই রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ৯ বছরের সম্পর্ক ছেদ করে ৯৯.২ পাউন্ড ট্রান্সফার বিনিময়ে জুভেন্টাসে নাম লেখান রোনালদো। গত মৌসুমে লস ব্লাঙ্কোসদের জার্সিতে লা লিগায় ২৬ ও চ্যাম্পিয়নস লিগে ১৫ গোল করেছেন সিআর সেভেন। রিয়ালকে এনে দিয়েছেন রেকর্ড ১১ ও টানা তৃতীয় চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা। আর বিশ্বকাপে করেেেছন আসরের প্রথম হ্যাটট্রিক ও মোট চার গোল। তবে এত কিছুর পরও রিয়ালের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় নতুন ঠিকানা হিসেবে বেছে নেন তুরিনের ওল্ড লেডিদের। কাল তুরিনে পরিচয় পর্বে তিনি সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এসে জুভেন্টাসে যোগ দিতে পেরে আমি অত্যন্ত খুশি।’ গত মৌসুমেই চ্যাম্পিয়নস লিগে জুভেন্টাসের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক বাইসাইকেল ক্লিক থেকে গোল করেছিরেন রোনালদো। সেই ম্যাচে তুরিনের দর্শক থেকে টুপি খোলা অভিবাদন পেয়েছিলেন তিনি। রোনাদোর কারণেই গত দুই মৌসুম জুভদেরকে বঞ্চিত থাকতে হয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা থেকে। তবে এবার তিনি ইতালিতে যোগ দিয়েছেন জুভেন্টাসকে চ্যাম্পিয়নস লিগের স্বপ্ন পূরণ করতে। কাল তিনি আরো বলেন, ‘জুভেন্টাসে আসা ভালো সিদ্ধান্ত ছিল। এটা ইতালির সেরা ক্লাব। দলে ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রির মতো দুর্দান্ত একজন কোচ আছেন। আমি খুবই উচ্চাভিলাষী এবং নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। আশা করি সবকিছু ভালোভাবে চলবে। ভাগ্য সবসময় সাহায্য করে কিন্তু আপনাকেও এটার খোঁজে থাকতে হবে।’

"