ফাহিমার হ্যাটট্রিক বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন রুমানা আহমেদ। আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্টে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে হ্যাটট্রিকের স্বাদ পান রুমানা। তার ২ বছর পর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে হ্যাটট্রিক করলেন ফাহিমা খাতুন।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে মেয়েদের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের শেষ ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন লেগব্রেক এই বোলার। ফাহিমা, রুমানা ও নাহিদার বোলিং ভেলকিতে ১৬.২ ওভারে মাত্র ৩৯ রানে অলআউট হয়ে যায় আমিরাতের মেয়েরা। ফাহিমা ৪ ওভার বল করে মাত্র ৮ রান দিয়ে ৪টি উইকেট নেন। ২ ওভার বল করে ১ মেডেনসহ ৪ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন রুমানা। ২.২ ওভার বল করে ২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন নাহিদা আক্তার। ১৩তম ওভারের শেষ তিন বলে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে হ্যাটট্রিক করেন ফাহিমা। তারপরই রুমানা আহমেদের ওভারে চার বলের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারায় আমিরাত। আর ১৭তম ওভারের প্রথম ২ বলে ২টি উইকেট নিয়ে আমিরাতকে গুঁড়িয়ে দেন নাহিদা। হ্যাটট্রিক করার পথে ফাহিমা তার শিকারে পরিণত করেন টপ অর্ডারের উদেনি ডোনা, ইশা রোহিত ও কাভিশা ইগোদাজেকে।

৪০ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৬.৫ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। নিগার সুলতানা অপরাজিত ২১ ও সানজিদা ১৫ রান করেন।

এই জয়ের ফলে তিন ম্যাচের তিনটিই দাপটের সঙ্গে জিতে ২০১৮ নারী বিশ্বকাপে জায়গা করে নিল সালমা-রুমানারা। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করল বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৪ ও ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা।

"