ফ্রান্স-বেলজিয়াম ম্যাচ ফ্যাক্টস

প্রকাশ : ১০ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

* এ নিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল খেলবে বেলজিয়াম। ১৯৮৬ সালে প্রথমবার বিশ্বমঞ্চের শেষ চারে উঠেছিল বেলজিয়ানরা। ওই আসরে ডিয়েগো ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনার কাছে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল তাদের।

 

* টানা ২৩ ম্যাচ ধরে অপরাজিত আছে বেলজিয়াম। রবার্তো মার্টিনেজের দল সবশেষ ম্যাচটি হেরেছিল ২০১৬ সালে; ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে। গ্যারেথ বেলের ওয়েলসের বিপক্ষে হেরেছিল কালো ঘোড়ারা।

 

* চলমান বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্যে (কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত) সবচেয়ে বেশি ১৪টি গোল করেছে বেলজিয়াম।

 

* এই বিশ্বকাপে বেলজিয়ামের ভিন্ন নয়জন ফুটবলার গোল করেছেন। বিশ্বকাপের এক আসরে একটি দলের হয়ে এর চেয়ে বেশি খেলোয়াড়ের গোল করার কীর্তি আছে দুই দলের। ২০০৬ সালে ইতালি ও ১৯৮২ সালে ফ্রান্স দলের সর্বোচ্চ ১০ জন করে ফুটবলার গোল করেছিলেন।

 

* জাতীয় দলের শেষ ১৩টি ম্যাচে ১৭টি গোল করেছেন রোমেলু লুকাকু। এছাড়া দলের হয়ে তিনটি গোলে অবদান রেখেছেন তিনি।

 

* দুইটি হলুদ কার্ডের কারণে আজকের ম্যাচে নিষিদ্ধ বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার তমা মুনিয়ে। তাকে ছাড়াই ফ্রান্সের মুখোমুখি হচ্ছে বেলজিয়ানরা।

 

* এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল খেলছে ফ্রান্স। আগের পাঁচ সেমির তিনটিতেই হেরেছে ফরাসিরা। ১৯৯৮ সালে ক্রোয়েশিয়া ও ২০০৬ সালে পর্তুগালকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল ফ্রান্স।

 

* চলতি আসরে লক্ষ্যে রাখা শেষ ছয়টি শটেই গোলের দেখা পেয়েছে ফ্রান্স।

 

* ইউরো ও বিশ্বকাপ মিলিয়ে ফ্রান্সের হয়ে শেষ ছয়টি নকআউট পর্বের ম্যাচে সাতটি গোল করেছেন অ্যান্তনিও গ্রিজম্যান।

 

* এই বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচ খেলেছে চারটি গোল হজম করেছে ফ্রান্স। এর মধ্যে শেষ ষোলোতে আর্জেন্টিনার বিপক্ষেই তিনটি।

 

* ইউরোপের দল দুইটি এর আগে ৭৩ বার মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে ফ্রান্সের জয় ২৪টি এবং বেলজিয়ানদের ৩০টি। বাকি ১৯টি ম্যাচ ড্র হয়েছে।

 

* ইউরো এবং বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতার মঞ্চে সব ম্যাচেই বেলজিয়ামকে হারিয়েছে ফ্রান্স।

"