মেক্সিকো-কোরিয়া মহারণ

প্রকাশ : ২৩ জুন ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

জার্মানি চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। গত আসরের চ্যাম্পিয়ন দলও তারা। কিন্তু রাশিয়া বিশ্বকাপে এসব সমীকরণকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েছে মেক্সিকো। বিশ্বকাপে ঐতিহাসিক জয় নিয়ে জোয়াকিম লোর শিষ্যদের এক ঝটকায় মাটিতে নামিয়ে এনেছে মেক্সিকানরা। আজ দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার লড়াইয়ে হুয়ান কার্লোস ওসারিওর শিষ্যরা মুখোমুখি হবে ‘ই’ গ্রুপের আরেক দল দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে।

এশিয়ান জায়ান্ট দক্ষিণ কোরিয়া নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল সুইডেনের বিপক্ষে। তবে লড়াইয়ের পরও পরাজয় বরণ করতে হয়েছে শিন তায়ি-ইয়ংয়ের শিষ্যদের। আজকের ম্যাচে শেষ ষোলোতে উঠার লড়াইয়ে ঠিকে থাকতে হলে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই তায়েগুক ওয়ারিয়র্সদের সামনে।

গত ম্যাচে কার্লোস ওসারিও দল সাজিয়েছিলেন ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে। জার্মানদের বিপক্ষে সফলতা পাওয়ায় এবারও অপরিবর্তিত দল মাঠে নামাবেন তিনি। অন্যদিকে কোরিয়ার সম্ভাব্য কৌশল হতে পারে ৪-৩-২-১ ফর্মেশন। জার্মানির বিপক্ষে এল থ্রিদের জয়সূচক গোলটি এসেছিল পিএসভি উইঙ্গার হার্ভিং লোজেনোর পা থেকে। এবারও স্পটলাইটটা থাকবে তার ওপর। সেই সঙ্গে মেক্সিকোর সবচেয়ে বড় তারকা হাভিয়ের হার্নান্দেজ তো আছেনই। তাছাড়া গোলপোস্টের নিচে মেক্সিকোর অন্যতম ভরসার নাম হয়ে উঠেছেন ঝাঁকড়া চুলের ওচোয়া।

ম্যাচের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত সমানতালে দৌড়াতে পারার কারণে সুনাম আছে কোরিয়ার। প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য যা বিষের মতো কাজ করে। দলের সবচেয়ে বড় তারকা টটেনহাম ফরওয়ার্ড সং হিয়ুং মিন। গোলপোস্টের নিচে থাকবেন চু হিয়ুন-ও। সুইডেনের বিপক্ষে দুর্দান্ত কয়েকটা সেভ করে ইতোমধ্যে নিজের জাত চিনিয়েছেন তিনি।

এই নিয়ে বিশ্বকাপে দ্বিতীয়বারের মতো মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল। ১৯৯৮ ফ্রান্স বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের সাক্ষাতে কোরিয়াকে ৩-১ গোলে হারিয়েছিল মেক্সিকো। বিশ্বকাপে এশিয়ার দেশগুলোর বিপক্ষে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে আছে মেক্সিকানরা। গত দুইবারও তারা এশিয়ানদের বিপক্ষে জয় পেয়েছে। ৭ গোল দেওয়ার পাশাপাশি হজম করেছিল ২ গোল। অন্যদিকে কোরিয়ানরা এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো কনকাকাফ অঞ্চলের দেশের বিপক্ষে মুখোমুখি হবে। তন্মধ্যে একবার তারা হেরেছে মেক্সিকোর বিপক্ষে। আর ২০০২ বিশ্বকাপে ড্র করেছিল যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে।

"