ইংলিশ লিগের স্মরণীয় রাত

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

পরশু ছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের স্মরণীয় রাত। চলতি মৌসুমের শেষ ম্যাচটি খেলতে মাঠে নেমেছিল ইংলিশ ক্লাবগুলো। রোববারের রাতটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে অনেক কারণে। কয়েক ম্যাচ হাতে রেখেই লিগ শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলা ম্যানচেস্টার সিটি ১-০ গোলে সাউদ্যাম্পটনকে হারিয়ে ছুঁয়েছে ১০০ পয়েন্টের ঘর। এটি লিগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো চ্যাম্পিয়ন দলের সর্বোচ্চ পয়েন্ট জয়ের রেকর্ড। এছাড়া রোববার লিগের ইতিহাসে কোনো ফুটবলারের এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডও দেখেছেন ফুটবল ভক্তরা।

দুইটি ইতিবাচক ঘটনার সঙ্গে একটি নেতিবাচক ঘটনাও আছে এবারের মৌসুমে। আগের আসরের চ্যাম্পিয়নদের শেষ রাউন্ডে বিধ্বস্ত হওয়ার দৃশ্য দেখা গেল এই প্রথম। আছে বিয়োগান্তক দৃশ্যও। দীর্ঘ ১৬ বছরের ইংলিশ ফুটবল অধ্যায়ে শেষ হয়ে গেল সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও এভারটন স্ট্রাইকার ওয়েন রুনির। রোববার শেষ ম্যাচে ওয়েস্টহামের বিপক্ষে ৩-১ গোলে হেরে গেছে রুনির দল এভারটন।

তবে সবচেয়ে স্পর্শকাতর বিদায়টা হলো কিংবদন্তি কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারের। আর্সেনালের সঙ্গে দীর্ঘ ২২ বছরের সম্পর্কটাকে পরশু আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানালেন এই ফ্রেঞ্চ কোচ। গানারদের আগে তিনবার লিগ শিরোপা এনে দেওয়া ওয়েঙ্গার চলতি মৌসুমটা শেষ করেছেন লিগ টেবিলের ছয় নাম্বারে থেকে। তবে দ্য প্রফেসরের জন্য স্বস্তির বিষয় ছিল শেষ ম্যাচের জয়। গত কয়েক ম্যাচে ধাক্কা খাওয়া গানারদের জয় এনে দিয়ে আর্সেনাল অধ্যায়ের ইতি টানলেন এই কিংবদন্তি কোচ। হাডার্সফিল্ড টাউনের মাঠ থেকে ১-০ গোলের জয় নিয়ে বিদায়ী ম্যাচটাও রাঙিয়ে গেলেন ওয়েঙ্গার। ওয়েঙ্গারের লিগের ১২৩৫তম ম্যাচের একমাত্র ও জয়সূচক গোলটি করেছেন আউবামেয়াং। স্মরণীয় রাতে লন্ডনের আরেক ক্লাব চেলসিকে মাঠ ছাড়তে হয়েছে একরাশ হতাশা নিয়ে। রোববার লিগের শেষ ম্যাচে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের মাঠে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা। আর তাতে আগামী মৌসুমে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলার স্বপ্নটা শেষ হয়ে গেলো ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যদের। পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নাম্বারে থেকেই মৌসুম শেষ করল ব্লুজরা।

লিগের শেষ রাতের ম্যাচে সবচেয়ে বড় রোমাঞ্চকর জয়টা উপহার দিয়েছে টটেনহাম হটস্পার। এদিন ৯ গোলের থ্রিলার ম্যাচ দেখেছে ফুটবল ভক্তরা। ঘরের মাঠ ওয়েম্বেলি স্টেডিয়ামে সাবেক লিগ চ্যাম্পিয়ন লেস্টার সিটিকে ৫-৪ গোলে হারিয়েছে টটেনহাম। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থান অধিকার করে মৌসুম শেষ করলো মাউরিচিও পচেত্তিনোর দল। ৩৮ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৭৭ পয়েন্ট।

টটেনহামের চেয়ে চার পয়েন্ট বেশি নিয়ে মৌসুমের লিগ রানার্সআপ হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। পরশু ওল্ড ট্রাফোর্ডে রেড ডেভিলরা ১-০ গোলে হারিয়েছে ওয়াটফোর্ডকে। তবে ইউনাইটেডের হয়ে জয়সূচক গোল করা মার্কাশ রাশফোর্ড ছিলেন না আলোচনায়। লাইম লাইটে থাকলেন শুধুই মাইকেল ক্যারিক। পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে এদিন ১৯ বছরের অধ্যায়ের ইতি টানলেন তিনি। ম্যাচের আগে তিনি পেলেন দুই দলের খেলোয়াড়দের গার্ড অব অনার। ১০ বছর ইউনাইটেডের হয়ে খেলা এই কিংবদন্তি অবশ্য নতুন মৌসুমেই ক্লাবের সহকারী কোচের ভূমিকায় যোগ দেবেন।

লিগের আরেক ম্যাচে লিভারপুল ৪-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ আলবিয়নকে। ২৬ মিনিটে লিভারপুলকে প্রথম গোল এনে দেওয়া মোহাম্মদ সালাহ করেছেন লিগের এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড। এই জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে থেকে আগামী মৌসুমে সরাসরি চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলাটা নিশ্চিত করল অলরেডরা। ৩৮ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৭৫ পয়েন্ট।

"