সালাহর হ্যাটট্রিক পুরস্কার

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

চলতি মৌসুমটা দুই হাত ভরে দিয়েছে মোহাম্মদ সালাহকে। প্রথমবারের মতো লিভারপুলের জার্সি গায়ে ফুটবল বিশ্বকে অবাক করে দিয়েছেন এই মিসরীয়ান ফরওয়ার্ড। দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে ২০০৭ সালের পর অলরেডদেরকে তুলেছেন উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও তার দল আছে চতুর্থ স্থানে।

২৫ বছল বয়েসী সালাহ ইতোমধ্যে সব প্রতিযোগিতা মিলে করে ফেলেছেন ৪৩ গোল। যার মধ্যে চ্যাম্পিয়নস লিগে করেছেন ১০টি। এই মৌসুমে গোল সংখ্যায় পেছনে ফেলেছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোদের মতো খেলোয়াড়দের। সেই সঙ্গে হয়ে উঠেছেন ব্যালন ডি’ অরের দাবিদারও। তবে সেই পুরস্কারের ঘোষণা আসতে অনেকদিন বাকি। তার আগে উজ্জ্বল পারফরম্যান্সের জন্য লন্ডনে আয়োজিত ফুটবল রাইটার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে পুরস্কার পেলেন বর্ষসেরা ফুটবলারের স্বীকৃতি। এই নিয়ে চলতি মৌসুমে হ্যাটট্রিক পুরস্কার জিতে নিলেন মিসরিয়ান ফারাও। এর আগে সালাহ লিভারপুলের বর্ষসেরা ও প্রিমিয়ার লিগের বর্ষসেরার পুরস্কার পেয়েছিলেন।

পুরস্কার লাভের পর সালাহ তার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অভিজ্ঞতা নিয়ে কথাও বলেছেন অনুষ্ঠানে। চেলসিতে থাকাকালীন ব্যর্থতার ঢাকার জন্য লিভারপুলের হয়ে অভিষেক মৌসুমেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের করছেন বলে তিনি জানান। চেলসি ছাড়ার পর থেকেই সমালোচকদের জবাব দেওয়ার ইচ্ছে ছিল সালাহর।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘প্রায় চার বছর আগে আমি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলতাম। মানুষ মনে করত আমি এখানে সাফল্য পাব না। তাই আমার এখানে ফিরে আসার ইচ্ছে ছিল। চেলসি ছাড়ার প্রথম দিন থেকেই আমি সমালোচকদের ভুল প্রমাণ করতে চেয়েছি।

২০১৪ সালে বাসেল থেকে চেলসিতে এসেছিলেন সালাহ। কিন্তু হোসে মরিনহোর অধীনে দুই বছরে মাঠে নামতে পেরেছিলেন মাত্র ১৩টি ম্যাচে। এরপর নিজেকে প্রমাণ করার জন্য তিনি ধারে চলে যান ইতালির ক্লাব ফিওরেন্তিনায়। সেখান থেকে পরের মৌসুমেই আসেন রোমাতে। ২০১৫-১৭ মৌসুম পর্যন্ত রোমান গ্লাডিয়েটরদের সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে যুদ্ধ করার তিনি নজর কাড়েন লিভারপুলের। চলতি মৌসুম থেকেই অলরেডদের জার্সিতে সালাহ রূপকথার শুরু।

লিভারপুলের হয়ে ইতোমধ্যে সালাহ সবার মন জয় করে নিয়েছেন। ফুটবল বিশ্বের বড় ক্লাবগুলোও তাকে চাচ্ছে দলে ভিড়াতে। তন্মধ্যে সালাহর জন্য রিয়াল মাদ্রিদ ২০০ মিলিয়ন খরচ করতেও প্রস্তুত, এমনও শোনা যাচ্ছে। তবে তিনি পরশু সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন লিভারপুলে তার ভবিষ্যৎ নিয়ে। তিনি বলেন, এখানে সবকিছু ঠিক আছে। লিভারপুলের হয়ে আমার উচ্চাকাক্সক্ষা আছে। দারুণ একটা মৌসুম কাটল আমাদের। চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালেও উঠেছি আমরা।’

 

"