জমে উঠল ইতালিয়ান লিগ

প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

২০১৭-১৮ ফুটবল মৌসুম এখন প্রান্ত সীমায়। হাতে ম্যাচ আছে মাত্র পাঁচটি করে। অথচ এখনই নিশ্চিত হয়ে গেছে ইউরোপিয়ান শীর্ষস্থানীয় চারটি দেশের ঘরোয়া লিগের শিরোপাভাগ্য। ব্যতিক্রম শুধু ইতালিয়ান সিরি’এ লিগে। ইতালিয়ান লিগ নিয়ে এখনো রোমাঞ্চ আছে। শিরোপা দৌড়ে খুব কাছাকাছি আছে জুভেন্টাস ও নাপোলি। পরশু শীর্ষে থাকা জুভরা আবার পয়েন্ট খুইয়েছে। ফায়দাটা জয় দিয়ে তুলে নিয়েছে নাপোলি।

মৌসুমের শুরু থেকেই ইতালিয়ান লিগের শীর্ষস্থান হয়ে উঠেছে মিউজিক্যাল চেয়ারের মতো। একবার জুভেন্টাস এগিয়ে যায় তো আরেকবার নাপোলি। শিরোপা দৌড়ে দুই পক্ষের কেউ কাউকে ছাড় দিচ্ছে না একচুলও। গত দুই সপ্তাহ ধরে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটা দখল নিয়ে রেখেছে তুরিনের বুড়িরা। কিন্তু পরশু তলানিতে থাকা ক্রোটনের বিপক্ষে অপ্রত্যাশিতভাবে ১-১ গোলে ড্র করায় মূল্যবান দুটি পয়েন্ট হারিয়েছে অ্যালেগ্রি ম্যাসিমিলিয়ানোর জুভেন্টাস।

অন্যদিকে নিজেদের মাঠে উদিনেসকে ৪-২ গোলে হারিয়ে জুভদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধানটা ৪-এ নামিয়ে এনেছে এসএসসি নাপোলি। আর তাতে পুনর্বার শীর্ষস্থানের অধিকারের লড়াইটা আরেকবার জমিয়ে তুলেছে মাউরিজিও সারির শিষ্যরা।

ইতোমধ্যে পাঁচ ম্যাচ হাতে রেখে ইংলিশ লিগের শিরোপা নিশ্চিত করেছে ম্যানচেস্টার সিটি। জার্মানিতে বুন্দেসলিগা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। শুধু ইতালিতেই চলছে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই।

অবনমনের শঙ্কায় থাকা ক্রোটনের মাঠে গিয়ে লিগের এই গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে ড্র করতে হবে তা হয়তো ঘুণাক্ষরেও ভাবেননি অ্যালেগ্রি। ম্যাচের শুরুটা ভালোই করেছিল জুভরা। ১৬ মিনিটে ডগলাস কস্তার ক্রসে দুর্দান্ত হেডে জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন আলেক্স সান্দ্রো।

বিরতির পর ফিরে জুভদের বিপক্ষে প্রথম আক্রমণের সুযোগ পায় ক্রোটন। কিন্তু জুভ গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হন ব্রুনো মারতেল্লা। এইদিন জুভদের নিয়মিত গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফন ছিলেন বিশ্রামে। তবে দুর্দান্তভাবে খেলায় ফিরে আসা ক্রোটনের বিপক্ষে ব্যবধানটা বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি জুভেন্টাস। ৬৫ মিনিটে ক্রোটনকে সমতা ফেরানো গোল এনে দেন নোয়ানকো।

পরবর্তী সময়টুকুতে জয়সূচক গোল পেতে মরিয়া জুভেন্টাস আক্রমণের পসরা সাজিয়ে বসলেও ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতা ও ক্রোটনের রক্ষণভাগের দৃঢ়তায় গোল পাওয়া হয়নি। হিগুয়েন, দিবালাদের একের পর এক গোল মিসের মহড়ায় শেষ পর্যন্ত ড্র নিয়েই ফিরতে হয় অ্যালেগ্রির দলকে।

এই ড্রয়ে ৩৩ ম্যাচে ৮৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে জুভেন্টাস। অন্যদিকে উদিনেসের বিপক্ষে জয় পাওয়া নাপোলি সমান ম্যাচ খেলে ৮১ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। পরের সপ্তাহে জুভেন্টাস ঘরের মাঠে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হবে নাপোলির। তাতেই হয়তো শিরোপাটা কারা ঘরে তুলছে তা নির্ধারণ হয়ে যাবে।

অন্যদিকে সিরি’এ লিগে প্রথমার্ধে এগিয়ে গিয়েও তোরিনোর বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে এসি মিলান। দুই বড় দলের পয়েন্ট হারানোর দিনে জয় পেয়েছে এএস রোমা ও লাৎসিও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালে লিভারপুলের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসটা ঝালিয়ে নিয়েছে রোমানরা। ঘরের মাঠে তারা ২-১ গোলে হারিয়েছে জেনোয়াকে।

"