বার্নাব্যুতে জুভেন্টাসের অগ্নিপরীক্ষা

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গিয়ে কাজটা করা যে কঠিন হবে তা ভালো করেই জানেন ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি। কিন্তু তাই বলে ছেড়ে কথা বলার লোক তিনি নন। এর আগেও বেশ কয়েকবার সেই প্রমাণ দিতে হয়েছে তাকে। আজ ডাগ আউটে বসে পরীক্ষাটা আবার দিতে হবে প্রতিপক্ষের মাঠে। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ৪-০ গোলের জয় না পেলে এবারের মতো এখানেই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ যাত্রার ইতি টানতে হবে অ্যালেগ্রিকে। সেই সঙ্গে শেষ হয়ে যাবে জুভেন্টাস গোলপোস্টো অতন্দ্রপ্রহরী জিয়ানলুইজি বুফনের চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা স্বপ্নটাও।

এর আগে নিজেদের ঘরের মাঠ তুরিনে কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে জুভেন্টাসকে ৩-০ গোলে হারতে হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে। আজ তাই চ্যাম্পিয়নস লিগ স্বপ্নটা টিকিয়ে রাখার অগ্নিপরীক্ষায় নামতে হবে তুরিনের বুড়িদের। সেমিফাইনালে যেতে হলে বার্নাব্যুতে ঘটাতে হবে অলৌকিক কিছু। কিন্তু সেমিফাইনালে এক পা দিয়ে রাখা রিয়ালের বিপক্ষে সেই সুযোগটা পাওয়া যে কত কঠিন তা আগেই বুঝিয়ে দিয়েছেন জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

গতবারের দুই ফাইনালিস্টের এবার যে কারো একজনের বিদায়টা নিশ্চিত। আজকের ম্যাচ দিয়েই মীমাংসা হয়ে যাবে সেই সমীকরণটা। তবে তিন গোলে পিছিয়ে পড়ায় মাথাটা কাটা যেতে পারে জুভেন্টাসের। নিজেদের মাঠে দুর্দান্ত খেলার পরও হজম করতে হয়েছে তিন গোল। অ্যালেগ্রির দলকে মূলত ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছিলেন মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। দুই গোল করার পাশাপাশি সতীর্থ মার্সেলোকে দিয়ে করিয়েছিলেন তিন নম্বর গোলটা।

তুরিনে করা বাইসাইকেল কিকটা নিয়ে এখনো আলোচনা থেমে যায়নি। রোনালদোর এই গোলটিকে অনেকে মর্যাদা দিয়েছেন চ্যাম্পিয়নস লিগের অন্যতম সেরা গোল হিসেবে। এর মধ্যে চ্যাম্পিয়নস লিগে টানা ১০ ম্যাচে গোল করার অনন্য কীর্তিটাও গড়ে নিয়েছিলেন। এই তো দুই দিন আগে বার্নাব্যুর মাদ্রিদ ডার্বিতে গোল করে ছুঁয়েছেন ৬৫০তম গোলের মাইলফলক। জুভদের আজ অসম্ভব কিছু করতে হলে থামাতে হবে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রোনালদো। আর প্রতিপক্ষের সম্মানটা কিভাবে আদায় করে নিতে হয় তা ভালো করেই জানেন পর্তুগিজ তারকা। আজ যদি সিআর সেভেন আরেকবার জ্বলে উঠেন তবে ‘মড়ার উপর খাঁড়া ঘা’ হয়ে দেখা দিতে পারে জুভেন্টাসের জন্য।

বার্নাব্যুতে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে এরই মধ্যে নিজেদের ঝালায় করে নিয়েছে অ্যালেগ্রির শিষ্যরা। পাওলো দিবালার মাইলফলক ছোঁয়া হ্যাটট্রিকে বেনেভেন্তার বিপক্ষে তারা জয় পেয়েছে ৪-২ গোলে। জয় পেলেও জুভেন্টাসের সমর্থকদের এখন আফসোসের সময়। সেই আফসোসটা বাড়িয়েছেন পাওলো দিবালা। দল জেতানো ফর্মটা তিনি দেখাতে পারবেন না বার্নাব্যুতে। রিয়ালের বিপক্ষে প্রথম লেগে লাল কার্ড দেখায় আজকে মাঠে নামতে পারবেন না এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

দলের সেরা খেলোয়াড়কে দলে না পেলেও জয়ের আশা ছাড়ছেন না অ্যালেগ্রি। বেনেভেন্তোর বিপক্ষে জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি আত্মবিশাসের সুরেই বলেছেন, ‘দিবালাকে ছাড়াই বার্নাব্যুতে আমাদের ফিরতি লেগ খেলতে হবে। আজ সে দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করেছে। তবে তাকে ছাড়াই মাদ্রিদের বিপক্ষে পূর্ণশক্তির দল মাঠে।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের অন্য কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি লেগে আজ মাঠে নামবে বায়ার্ন মিউনিখ ও সেভিয়া। প্রথম লেগে ঘরের মাঠ র‌্যামন সানচেজে স্প্যানিশ ক্লাবটিকে ১-২ গোলে হারতে হয়েছিল বায়ার্নের বিপক্ষে। আজ তারা খেলতে নামবে অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায়। দীর্ঘ ৬০ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলছে সেভিয়া। আজ ড্র বা হেরে গেলে সেই স্বপ্নটার মাটি দিতে হবে ভিনচেঞ্জো মনতেল্লার শিষ্যদের। পরের মৌসুমেও চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ তাদের। কারণ লা লিগায় তাদের বর্তমান অবস্থান ৭ম স্থানে। অন্যদিকে ইয়ুপ হেইঙ্কসের শিষ্যরা আছে দারুণ ছন্দে। প্রথম লেগে জিতে সেমিফাইনালে এক পা দিয়ে রাখা বাবারিয়ানরা লিগে তাদের শিরোপাটাও নিশ্চিত করে ফেলেছে প্রায়।

"