মহারণ জিতে ফিরল আর্সেনাল

প্রকাশ : ১০ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১০ মার্চ ২০১৮, ০১:২০

ক্রীড়া ডেস্ক

আর্সেন ওয়েঙ্গারের পরশু রাতে নিশ্চয়ই ভালো ঘুম হয়েছে। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় টানা চার ম্যাচ হেরে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল তার দল আর্সেনাল। গানার্স সমর্থকরাও শুরু করেছিল ‘ওয়েঙ্গার হঠাও’ দাবি। দাবি উঠাটাই স্বাভাবিক। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ঘরোয়া ফুটবলের মূল প্রতিযোগিতা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ কোনো সাফল্য নেই আর্সেনালের। এই মৌসুমে লিগ টেবিলেও তারা রয়েছে ৬ নম্বরে। তাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের পরবর্তী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন তাদের ফেরাটা আরো সংশয়ের মুখে পড়েছে। ভরসা শুধু উয়েফা ইউরোপা লিগ। ইউরোপের দ্বিতীয় সারির এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে একটা টিকিট পাবে আর্সেনাল।

সেই পথেই হাঁটছে আর্সেনাল। পরশু ইউরোপা লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে মহারণ জিতে ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে ওয়েঙ্গারের দল। সান সিরোতে ইতালিয়ান পরাশক্তি এসি মিলানকে ২-০ গোলে হারিয়েছে গানাররা। অথচ এ ম্যাচে হারার আগে টানা ১৩ ম্যাচ অপরাজিত ছিল এসি মিলান।

ম্যাচের ১৫ মিনিটের সময় আর্মেনিয়ান উইঙ্গার হেনরিখ মিখিতারিয়ান দুর্দান্ত এক গোলে এগিয়ে যায় আর্সেনাল। নীরব হয়ে পড়ে সান সিরো স্টেডিয়াম। ঘরের মাঠে এক গোলে পিছিয়ে পড়ে আক্রমণ চালাতে থাকে মিলানের ক্লাবটি। কিন্তু আর্সেনালের রক্ষণভাগ হতাশ করেছে গাত্তুসোর দলকে। উল্টো প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে প্লে-মেকার মেসুত ওজিলের ডিফেন্স চেরা পাসে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অ্যারন র‌্যামসে। তাতেই গত ১৬ বছরের মধ্যে সান সিরোতে প্রথম জয় পেলে আর্সেনাল। এ জয়ের ফলে কোয়ার্টার ফাইনালের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল লন্ডনের ক্লাবটি। তবে ১৫ মার্চ অ্যামিরেটস স্টেডিয়ামে অগ্নি-পরীক্ষা দিতে হবে এসি মিলানকে।

জয়ের ম্যাচটাকে ওয়েঙ্গার তুলনা করেছেন বক্সিং ম্যাচের সঙ্গে। তিনি বলেছেন, ‘এটা অনেকটা বক্সিং ম্যাচের মতো। যখন প্রায় নকআউট হয়ে গেছেন, ঘুরে দাঁড়াতেও পারছেন না, একটার পর একটা পরাজয় আসছে। তখন একটা সময় আপনাকে ঘুরে দাঁড়াতে হয়। সম্মানবোধ ও জেতার ইচ্ছা থাকলে তা খেলার মধ্যে ফুটে উঠবেই।’

আর্সেনালের জয়ের রাতে সঙ্গী হয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। লকোমোটিভ মস্কোকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ডিয়েগো সিমনের দল। তবে হোঁচট খেয়েছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। জার্মান ক্লাবটিকে তাদেরই মাঠে ২-১ গোলে হারিয়েছে সালবার্জ। তবে এ রাতের সবচেয়ে থ্রিলার ম্যাচটা উপহার দিয়েছে লাৎসিও এবং ডানামো কিভ। এদিন তারা ২-২ গোলের নাটকীয় ড্র করেছে।

 

ফলাফল

এসি মিলান ০:২ আর্সেনাল

অ্যাট. মাদ্রিদ ৩:০ মস্কো

সিএসকেএ মস্কো ০: ১ লিঁও

ডর্টমুন্ড ১:২ সালবার্জ

লাৎসিও ২:২ ডায়নামো কিভ

লাইপজিগ ২:১ জেনিত

মার্শেই ৩:১ অ্যাথ. বিলবাও

স্পোর্টিং সিপি ২:০ প্লাজেন।

* স্বাগতিক দল আগে

"