আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি

ম্যাশকে ফেরাতে মরিয়া বিসিবি

প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

অনেকটা চাপের মুখেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেটা অবশ্য কখনোই স্বীকার করেননি বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। ক্রিকেটের ক্ষুদ্র ফরমেটে তার অনুপস্থিতি হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে টাইগাররা। দলের অবস্থা একেবারেই নাকাল।

এই দুঃসময়ে বাংলাদেশকে উদ্ধার করতে তাই মাশরাফির শরণাপন্ন হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। নড়াইল এক্সপ্রেসকে অবসর ভেঙে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফেরার জন্য আনুষ্ঠানিক পদক্ষেপ নিচ্ছে বোর্ড। কাল বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলেও আমি মাশরাফিকে চেয়েছিলাম। সে এই ফরমেটে নয়, সে টেস্টে ফিরতে চায়। আমি তো আর জোর করতে পারি না। সামনে নিধাস ট্রফি। আমরা তাকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফেরাতে চাই।’

ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথম তিন ম্যাচ জেতার পর কোথায় যেন হারিয়ে গেছে বাংলাদেশ দল। শেষ দুই ম্যাচে হেরে ট্রফি খুইয়েছে টাইগাররা। টেস্টে হেরেছে সিরিজ। টি-টোয়েন্টিতে তো লঙ্কানদের কাছে হোয়াইটওয়াশই হয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। দলের এই ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধান করছে বিসিবি। মূলত প্রধান কোচ না থাকার কারণেই দলের এই নাজেহাল অবস্থা হয়েছে। বিসিবি প্রধান জানালেন কোচের দরকারের বিষয়টি সেভাবে বলাই হয়নি। মঙ্গলবার বেক্সিমকো কার্যালয়ে সাংবাদিকদের নাজমুল বলেছেন, ‘আমাকে এমন কথাও বলা হয়েছে, কোচেরই দরকার নেই। সবার কথা শুনে আমি অনুমতি দিয়েছিলাম। আগে আমরা যেভাবে খেলে আসছিলাম, যে পরিকল্পনা হতো সেটা ছিল না। জিততে পারি, জিতবো এই মানসিকতা ছিল না ।’

আগামী মাসে শ্রীলঙ্কায় ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের দুই প্রতিপক্ষ ভারত ও শ্রীলঙ্কা। টি-টোয়েন্টি ফরমেটের এই টুর্নামেন্টের জন্য মাশরাফিকে ফেরানোটা যেমন দরকার মনে করছেন নাজমুল, তেমনি কোচের বিষয়টিকেও গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন তিনি, ‘আমি সব সময় কোচের কথা বলি। ক্রিকেটের বাইরে হকি এবং কাবাডিতে বলেছি তোমরা বিদেশ থেকে কোচ আনো, আমি টাকা দেব। সামনে আমাদের নিধাস ট্রফি। আমরা চেষ্টা করছি তার আগে প্রধান কোচ আনার।’

"