টি-টোয়েন্টি দল না কচিকাঁচার আসর!

প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

তিন জাতির টুর্নামেন্টের শিরোপা হাতছাড়া করার পর টেস্ট সিরিজেও হেরে গেছে বাংলাদেশ। আড়াই দিনে হেরে যাওয়ার ধাক্কাটা সামলে ওঠার আগেই টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচের দল দিয়েছেন নির্বাচকরা। ১৫ সদস্যের টাইগার দল যেন অনেকটাই কচিকাঁচার আসর। কাল এই দলটায় নির্বাচকরা উপহার দিয়েছেন একের পর এক চমক। প্রথমবারের মতো তারা ডেকে পাঠিয়েছেন পাঁচ নতুনকে।

মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনির আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি অধ্যায় শুরু হয়েছে এই সেদিন। কুড়ি ওভারের কয়েকটা ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও হয়েছে এ যুগলের। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে তাদের রাখাটা স্বাভাবিক মনে হলেও বিস্ময় আকাশ ছুঁয়েছে নতুনদের গড়পড়তা দলে ডাকায়। পেসার আবু জায়েদ, বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হক, উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান জাকির হাসান, স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান ও আফিফ হোসেনের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে জাতীয় দলের দরজা। বিপিএলে দ্যুতি ছড়ানোর সম্ভাব্য সেরা পুরস্কারটাই যেন পেলেন এই পঞ্চমুখ। এতগুলো ক্রিকেটারের এক সঙ্গে স্বপ্নপূরণ হওয়ার নজির আছে কিনা সন্দেহ। তবে এটা প্রায় নিশ্চিত দুই একজনের অভিষেকটাও হয়ে যাবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

এই দল নিয়ে কাল প্রধান বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন ব্যাখ্যা দিলেন, ‘টি-টোয়েন্টি নতুন ফরম্যাট, সব খেলোয়াড় সব সংস্করণে খেললে...শারীরিকভাবে তো নিচ্ছে না। টেস্ট ম্যাচে দেখেন কত ক্লান্ত মনে হচ্ছিল খেলোয়াড়দের। আমাদের টেস্ট দলে বেশির ভাগ খেলোয়াড়ের জায়গা পোক্ত। টি-টোয়েন্টির মতো নতুন সংস্করণে নতুন খেলোয়াড় দিয়ে নতুনভাবে আমরা শুরু করতে চাই। নতুন খেলোয়াড়দের দেখার জন্য এই ফরম্যাটটা ভালো।’

কাল ঘোষিত দল দিয়ে ফেরা হচ্ছে সাকিবের। প্রত্যাশিতভাবে দুই ম্যাচের সিরিজে তিনিই নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশকে। বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে গড়াবে প্রথম ম্যাচ। ১৮ ফেব্রুয়ারি পরের ম্যাচের মঞ্চ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

বাংলাদেশ দল : তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি, আবু জায়েদ রাহি, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান, জাকির হাসান ও আফিফ হোসেন।

"