হেমন্তের স্মৃতি

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

কাব্য কবির

ছোটবেলা হেমন্তকালে যেতাম বাবার সাথে মাঠে,

পুলিপিঠা খেতাম বসে শানবাঁধানো ঘাটে।

গাঁদা ফুলের মালা গেঁথে খেলাঘর সাজাতাম,

খেলাঘরে বসে বসে বাঁশের বাঁশি বাজাতাম।

রোজ সকালে হাঁটতাম আমি শিশির ভেজা ঘাসে,

ঘাসফড়িং নাচত দেখতাম আমার আশপাশে।

দুপুরবেলা ঘুরতাম আমি চড়ে ডিঙি নায়ে,

দুরন্ত কিশোর ছিলাম ঘুরতাম আদুল গায়ে।

ধানের খেতে শালিকেরই বসত শত মেলা,

এই দৃশ্য দেখে আমার কাটত বিকালবেলা।

মনে পড়ে হেমন্তের সেই যে রঙিন স্মৃতি,

হেমন্তের প্রতি আমার আজও আছে প্রীতি

"