বঙ্গবন্ধু

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

শচীন্দ্র নাথ গাইন

দেশের পরে টানছিল তার, উদার ছিল বুক,

মাটি ও মার জন্য তিনি ত্যাগ করেছেন সুখ।

আধেক জীবন কাটিয়ে দিলেন আঁধার ঢাকা জেলে,

খোঁজ রাখা তার হয়নি নিজের কন্যা-জায়া-ছেলে।

 

হামলা করে শোষক দলে, মামলা করে শত,

অত্যাচারে জর্জরিত, হয়নি মাথা নত।

সত্য-ন্যায়ের পক্ষে ছিল কঠোর থাকার নীতি,

স্পষ্ট কথায় ছিল না তার মনের মাঝে ভীতি।

 

বজ্র সমান কণ্ঠটা তার গর্জে যখন ওঠে,

সেই ভাষণের জাদুর গুণে লক্ষ মানুষ ছুটে।

তর্জনী তার করলে উঁচু বীর জনতা জাগে,

স্বদেশভূমি ফুঁসতে থাকে তীব্র ক্ষোভে-রাগে।

 

অন্তরে তার স্নেহের ধারা ভালোবাসার টান,

তার ডাকে সব তৈরি হতো করতে জীবন দান।

জাত-ধর্মের হীন ভেদাভেদ ছিল না তার কাছে,

এই বাঙালির দরদ বোঝার তার মতো কে আছে?

 

শূন্যতা তার হয় না পূরণ যতই কাটুক দিন,

যুগের পরে যুগ পেরোলেও শোধ হবে না ঋণ।

সবার প্রিয় সেই নেতাকে বন্ধু সবাই জানি,

তারই শোকে অনন্তকাল ঝরবে চোখের পানি।

 

"