বৃষ্টি দিনের সাজ

প্রকাশ | ১০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

জীবনযাপন ডেস্ক

বাংলার প্রকৃতিতে এখন বর্ষা। ক্ষণে ক্ষণে আকাশ কালো করে ঝপঝপিয়ে নামে বৃষ্টি। তার মধ্যে ভ্যাপসা গরমেও জনজীবন অতিষ্ঠ। ঋতুর এ পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে আসে পোশাকের পরিবর্তনও। তাই তো ফ্যাশন হাউসগুলো বর্ষার কথা মাথায় রেখে কাপড়, রং ও ডিজাইনেও এনেছে নানা ধরনের পরিবর্তন। বৃষ্টি, বর্ষার ফুল, লতাপাতা, মেঘলা আকাশ এসব বিষয় ওঠে আসে পোশাকের মোটিফ হিসেবে।

রঙের ক্ষেত্রে সবুজ, নীল, ছাই, আকাশি ইত্যাদি প্রাধান্য দিয়ে থাকে হাউসগুলো। এ সময় ব্লাউজের ক্ষেত্রে হাইনেক ফ্যাশনটা বেশ চলে। তবে বর্ষায় সব সময় এটা পরা সুবিধাজনক নয়। তাই হাইনেক না করে গলার কাটিংয়ে অন্যভাবে বৈচিত্র্য আনা যায়। সকালে প্রখর রোদ দেখে ঘর থেকে বের হলেও যেকোনো সময় বৃষ্টির ছাঁটে কাকভেজা হয়ে যেতে পারেন আপনি। এই কথাটি চিন্তা করেই পোশাক নির্বাচন করা উচিত। যেমন সুতি বা জর্জেট যে শাড়িই পরুন, ব্লাউজ একটু মোটা সুতি কাপড়ের হওয়াই ভালো। রংটাও গাঢ় পরাই সুবিধাজনক। পাতলা কোটা শাড়িগুলো এ সময় এড়িয়ে চলাই আরামদায়ক।

পোশাকের সঙ্গে গয়না হালকা হলেই ভালো। কানে ছোট টপ বা হাতে কয়েকটি ব্রেসলেটই আর চুলে পরা যেতে পারে ফুল। তবে চুলটা বাঁধা থাকলেই ভালো। হাতখোঁপা করে তাতে গুঁজে দিতে পারেন কদম, বেলি বা চাঁপা ফুল। কপালে ছোট গোল টিপ এবং চোখে নীল, সবুজ বা ছাই রঙের কাজলের টান। চোখের সাজের ক্ষেত্রে অপসই ওয়াটারপ্রুভ জিনিস ব্যবহার করা নিরাপদ। আইশ্যাডো দিলে হালকা কোনো রং বেছে নিন। তবে মাসকারাটা ব্যবহার না করাটাই ভালো। হালকা ফেইস পাউডার লাগাতে পারেন। লিপস্টিকের বেলায় গ্লস হলেই ভালো। হালকা গোলাপি, বাদামি এ ধরনের রং বাছতে পারেন লিপস্টিকের জন্য।

মনে রাখবেন, সাজের মাধ্যমেই ফুটে উঠবে আপনার ব্যক্তিত্ব। তাই নিজের মনের মতো করে সাজুন, তবে সেটা যেন অতিরঞ্জিত না হয়, সেদিকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

"