রমজানে অফিস সাজ

প্রকাশ : ২৫ মে ২০১৮, ০০:০০

জীবনযাপন ডেস্ক

রমজান শুরু হয়েছে। তবে এ সময়ও চাকরিজীবীদের অফিসে যাওয়ার সময় একটু-আধটু সাজতে হয়। করপোরেট লুকের মধ্যে সংযতভাব, স্মার্টনেস কিন্তু এলিগেন্স হতে হয়। আর রোজার মাসে এগুলোর সঙ্গে বাড়তি দৃষ্টি রাখা জরুরি। কারণ, রোজার সঙ্গে আত্মিক শুদ্ধতার ব্যাপার থাকে। সে কারণে ‘এমন একটা লাইট মেকআপ নিতে হবে, যা দেখলে যেন বোঝা না যায়’ বললেন বিউটি এক্সপার্ট ফারজানা শাকিল।

একজন ডাক্তার বা একজন শিক্ষক বেশি সাজলে যেমন তাকে বেমানান লাগে, তেমনি একজন এয়ারহোস্টেজ না সাজলে তাকে বেমানান লাগে। পেশা অনুযায়ী তো সাজতেই হয়। তবে রোজার সময় সেই সাজের মধ্যে অবশ্যই মার্জিত ভাব থাকা উচিত।

ফারজানা শাকিল বলেন, ‘রোজার সময় যেন অবশ্যই মাইল্ড মেকআপ হয়। এখানে বেইজ মেকআপ না দিলেও হয়।’ রোজার সময় বাইরে বের হওয়ার আগে মুখে ময়েশ্চারাইজার বা লোশন লাগিয়ে নিন। যতটা সম্ভব বেইজ মেকআপ এড়িয়ে চলাটাই ভালো। বেইজ মেকআপ করলে একটা আর্টিফিসিয়াল লুক চলে আসবে, যা রোজার দিনে একদমই বেমানান। চোখের ক্ষেত্রে শ্যাডো ব্যবহার না করাই ভালো। চোখে হালকা করে কাজল দিতে পারেন। তাও যেন খুব বেশি না হয়।

ঠোঁটের ক্ষেত্রে লাইট পিঙ্ক কালারের লিপস্টিক দিতে পারেন। এ সময় টিপ না পরাটাই ভালো। কেউ কেউ ব্লাশনও দিতে পারেন, আবার নাও দিতে পারেন। চোখে মাশকারা বা আইলাইনার না দেওয়াই ভালো। পোশাকের ক্ষেত্রে এমন পোশাক বাছাই করা উচিত, যাতে মার্জিত লুক আসে। এমনিই এবার রোজা গরমের ভেতর। তাই এ সময় সুতি পোশাক বেছে নেওয়া উচিত। আর গাঢ় রঙের পোশাক রোজার সময় পরা উচিত নয়। সুতির মধ্যে যত হালকা রঙের পোশাক পরবেন, দেখতে ততটাই স্নিগ্ধ লাগবে।

রোজার সময় হাত ও ত্বকের পরিচর্যা জরুরি। তাই দেওয়া হলো কয়েকটি বিশেষ টিপসÑ

১. রোজার সময় আমাদের ঘরে ফলমূল থাকে। সব ফল থেকে এক পিস করে রেখে তা পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

২. যাদের ত্বকে ডার্ক সার্কেল পড়ে যায়, তারা মধুর সঙ্গে টমেটো পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

৩. চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে গমের অঙ্কুর, শসা, আলু পেস্ট করে চোখে দিয়ে ২০ মিনিট রিল্যাক্স হয়ে শুয়ে থাকুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন।

৪. শুকনো ত্বকের জন্য অ্যাভোকাডো, ৪/১ চা চামচ টক দই, সঙ্গে এক স্লাইস আপেল ব্লেন্ড করে পুরো মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

৫. তৈলাক্ত ত্বকের জন্য অ্যাভোগার্ডো, অরেঞ্জ জুস, টক দই মিশিয়ে মুখে দিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

৬. জোজোবা স্ক্রাবের সঙ্গে টক দই এবং ডিমের সাদা অংশ ভালোভাবে মিশিয়ে ২০ মিনিট রেখে ক্লিন করুন।

৭. ঠোঁটের ক্ষেত্রে গোলাপের পাপড়ির রস, মধু মিশিয়ে লাগালে ঠোঁটে পিঙ্ক টোন আসবে।

৮. গ্লিসারিনের সঙ্গে পানি মিশিয়ে ঠোঁটে ব্যবহার করুন।

৯. চুলের জন্য সপ্তাহে এক দিন হেয়ার প্যাক লাগাতে পারেন। একটা কলা, টক দই, পেঁপে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে ওয়েল ম্যাসাজের পর মাথায় লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের গোড়া শক্ত হবে এবং চুলে উজ্জ্বল ভাব আসবে।

১০. অ্যাভোকাডো (আগোরা ও নন্দনে পাওয়া যায়) সঙ্গে টক দই, ডিমের সাদা অংশ, ১ চামচ অলিভ অয়েল ও ১ চামচ মেয়নেজ ব্লেন্ড করে চুলে লগিয়ে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

"